নারী। প্রতীকী ছবি

নড়াইলের লোহাগড়ায় প্রেমে ব্যর্থ হয়ে অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে হাতুড়িপেটা করেছে ওবায়দুর নামের এক বখাটে। এ ঘটনায় ওবায়দুরের সহযোগী কাবুল নামের এক বখাটেকে আটক করেছে লোহাগড়া থানা পুলিশ।

২৫ মে শনিবার ভোরে লোহাগড়ার লাহুড়িয়া দ্বীননাথপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। আহত ছাত্রী দ্বীননাথপাড়া হাজী মোহাম্মদ স্মরণী স্কুলে অষ্টম শ্রেণিতে পড়তো। আহত ছাত্রীকে এলাকাবাসী উদ্ধার করে নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

এলাকাবাসী জানায়, শনিবার ভোরে দ্বীননাথপাড়ায় নিজের বাড়ি থেকে বের হয়ে স্কুলের এক শিক্ষিকার কাছে প্রাইভেট পড়তে বের হয় ওই ছাত্রী। পথে গোবিন্দপাড়া বালাবাড়ি নামক স্থানে পৌঁছালে বখাটে ওবায়দুর ও কাবুল তার গতিরোধ করে। এ সময় ওবায়দুর তার প্রেমে সাড়া দিতে বললে ওই ছাত্রী তা অস্বীকার করে। তখন ওবায়দুরের হাতে থাকা হাতুড়ি দিয়ে মেয়েটির শরীরের হাত-পা, হাঁটু, পিঠসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে পিটিয়ে থেঁতলে দেয়।

আহত মেয়েটির চিৎকারে গ্রামবাসী বের হয়ে তাকে রাস্তায় পড়ে থাকতে দেখে এবং উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে।

আহতের দাদি জানান, ওবায়দুর এর আগে স্কুলে যাবার পথে আমার নাতির পথ আটকায়, নানা রকমের প্রস্তাব দেয়। এর আগে গ্রামে এ ঘটনায় শালিসও হয়েছে। এরপর সে আমার নাতিকে ধর্ষণ করে খুন করবে- এসব হুমকি দিতে থাকে। আজকে বাচ্চা মেয়েটাকে পেটাল।

নড়াইলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর ও লোহাগড়া সার্কেল) মো. শরফুদ্দিন বলেন, এ ঘটনার পরপরই সন্ত্রাসী কাবুলকে আটক করা হয়েছে। অপরজন ওবায়দুরকে আটকের চেষ্টা চলছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

বখাটে ওবায়দুর জোমাদ্দার লাহুড়িয়া দ্বীননাথপাড়ার আজমল জোমাদ্দরের ছেলে। পুলিশ বখাটে কাবুলকে লাহুড়িয়া থেকে আটক করলেও ওবায়দুরকে আটক করতে পারেনি।

আজকের পত্রিকা/এমএআরএস/জেবি