নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। ছবি : আজকের পত্রিকা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কথা ও কাজের মধ্যে বিস্তর ব্যবধান বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। ২১ মার্চ বৃহস্পতিবার নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণেই খালেদা জিয়াকে আর জীবিত দেখতে চান না প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।’

প্রধানমন্ত্রীর কথা ও কাজের মধ্যে বিস্তর ব্যবধান উল্লেখ করে রিজভী বলেন, তিনি বলেন, ‘আমি বঙ্গবন্ধুর কন্যা, আমার ক্ষমতার দরকার নেই’। অন্যদিকে মিডনাইট নির্বাচনের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রিত্ব ধরে রাখেন।

রুহুল কবির রিজভী হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, দেশনেত্রীকে হত্যাচেষ্টা বন্ধ করে আজই তার পছন্দমতো বিশেষায়িত ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করুন। তাকে মুক্তি দিন। জনগণের ধৈর্য ও সহ্যের বাঁধ ভেঙে গেছে। সরকার যেন নিজেদের অশুভ পরিণতির দিকে ঠেলে না দেয়।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘আওয়ামী লীগ নেতা নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুউদ্দীনও দু’দিন আগে স্বীকার করেছেন রাতে সিল মেরে ব্যালট বাক্স ভর্তি করার কথা। এতোকিছুর পরও বাকশাল বলতে আর বাকি কি থাকলো।’

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, যুগ্ম-মহাসচিব খায়রুর কবির খোকন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম, সহ-দফতর সম্পাদক মুনীর হোসেন।

অজকের পত্রিকা/আ.স্ব/