বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলামের অসাম্প্রদায়িক চেতনা ধারণ করে এগিয়ে যাওয়ার জন্য নতুন প্রজন্মের প্রতি আহবান জানিয়ে লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসক অঞ্জন চন্দ্র পাল বলেন, নজরুল সংগীত মানুষের আবেগের সাথে সম্পৃক্ত। অথচ অনেকেই নজরুল সংগীত থেকে দূরে সরে যাচ্ছেন।

লক্ষ্মীপুর নজরুল সংগীত শিল্পীর অভাব রয়েছে। তাই আগামীতে প্রত্যেক পরিবারের মধ্যে নজরুল সংগীত শিল্পী গড়ে তুলতে হবে।

১২ নভেম্বর মঙ্গলবার জেলা পরিষদ মিলনায়তনে জাতীয় নজরুল সম্মেলন উপলক্ষে পাঁচ দিন ব্যাপী নজরুল সংগীত শিল্পী প্রশিক্ষক প্রশিক্ষণের উদ্বোধনী
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, যে প্রশিক্ষকরা সম্মেলনে অংশগ্রহণ করেছেন এর মধ্যে অনেকেই শুদ্ধভাবে নজরুল সংগীত গাইতে পারেন না।

এ প্রশিক্ষণ থেকে আপনারা শিখবেন এবং শিখাবেন। আপনাদের প্রতিদিনই গানের চর্চা থাকতে হবে।

একসময় নজরুল সংগীতের গানের আওয়াজে সকালে ঘুম ভাংতো । আর এখন তা একেবারেই বিলুপ্তির পথে। নজরুলের গান ও কবিতা বাঙালির প্রেরণার উৎস।’

সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের কবি নজরুল ইনস্টিটিউটের আয়োজনে এবং লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় এ প্রশিক্ষক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী মীর শওকত হোসেন এর সভাপতিত্বে

বিশেষ অতিথি ছিলেন, লক্ষ্মীপুর পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব এম এ তাহের, নজরুল ইন্সটিটিউট এর সিনিয়র প্রশিক্ষক সালাহ উদ্দিন আহম্মেদ, নজরুল ইন্সটিউিট কুমিল্লা বিভাগের সংগঠক আল আমিন, প্রশিক্ষক শামসুন্নাহার চৌধুরী।

উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) শফিউজ্জমান ভূঁইয়া, নজরুল সংগীত শিল্পী পরিষদের জেলা শাখার সভাপতি জাকির হোসেন ভূঁইয়া আজাদ, শিল্পকলা একাডেমীর সদস্য ও জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান ফরিদা ইয়াসমিন লিকা প্রমুখ।

মো: সোহেল রানা/লক্ষ্মীপুর