প্রতীকী ছবি

১৯ বছর বয়সী এক বাক প্রতিবন্ধী তরুণী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের (ইউএনও) গাড়িচালক আব্দুল গফফারকে (৫৬) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

১০ ফেব্রুয়ারি শনিবার সন্ধ্যার পর শ্যামনগর উপজেলা সদর থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। আব্দুল গফফার শ্যামনগর উপজেলার বাদঘাটা চন্ডীপুর গ্রামের মৃত. গহর আলী গাইনের ছেলে।

ধর্ষিতার স্বজনরা জানান, ইউএনও’র গাড়িচালক আব্দুল গফফার শ্যামনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের বাসভবনের পিছনে একটি সরকারি কোয়াটারে একা থাকেন। মেয়েটি আব্দুল গফফারের বাড়িতে কাজ করে। শনিবার দুপুরে তার জন্য বাড়ি থেকে ভাত নিয়ে যায় বাক প্রতিবন্ধী মেয়েটি। এ সময় একা পেয়ে আব্দুল গফফার জোরপূর্বক মেয়েটিকে ধর্ষণ করে। পরে বাড়িতে গিয়ে মেয়েটি তার মাকে জানায়। মা আকলিমা বেগম মেয়েকে নিয়ে থানায় মামলা করেন।

এ বিষয়ে শ্যামনগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হাবিল হোসেন বলেন, ধর্ষিতার মা আকলিমা বেগম বাদী হয়ে ধর্ষণ মামলা করেছেন। ধর্ষণের অভিযোগে আব্দুল গফফারকে গ্রেফতার করা হয়েছে। প্রতিবন্ধী মেয়েটি বর্তমানে পুলিশ হেফাজতে রয়েছে। ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য মেয়েটিকে সদর হাসপাতালে পাঠানো হবে।