ঘুম থেকে উঠার পরই ব্রাশ করার অভ্যাস গড়ে তুলেছি আমরা। ছবি: সংগৃহীত

মুখের স্বাস্থ্যবিধি ভালো রাখার জন্য সঠিক ভাবে ব্রাশ করার অভ্যাস করতে হবে। অনেক আগে থেকেই আমাদের দিনে অন্তত দুই বার ব্রাশ করার উপদেশ দিয়েছেন বড়রা। ঘুম থেকে উঠার পরই ব্রাশ করার অভ্যাস গড়ে তুলেছি আমরা। কিন্তু আপনি কি সত্যিই মনে করেন মুখের স্বাস্থ্য ও ডেন্টাল সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে এটি যথেষ্ট?

প্রতিদিন দুই বার অন্তত দুই মিনিট ধরে ব্রাশ করতে হবে। দুই মিনিট শুনতে কম মনে হলেও আসলে কম না। ব্রাশ ব্যবহারেও সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। অত্যধিক চাপ দাঁতের এনামেল নষ্ট করে, এমনকি মাড়ি থেকে রক্তক্ষরণও হতে পারে।

প্রতিদিন ব্রাশ করার পাশাপাশি মাউথওয়াশ ব্যবহার করাও খুব জরুরি। ছবি: সংগৃহীত

বিজ্ঞানও বলে যে প্রতিদিন দুই বার দুই মিনিট ধরে ব্রাশ করতে। জার্নাল অফ ডেন্টাল হাইজিনে প্রকাশিত একটি গবেষণায় বলা হয়েছে যে আপনি যতক্ষণ ধরে দাঁত ব্রাশ করেন না কেন দাঁতের প্ল্যাক ঠিক রেখে করতে হবে। গবেষণায় দাঁত ব্রাশ করায় প্ল্যাকের ক্ষতি সম্পর্কে পরীক্ষা করে দেখা হয়। দেখা গিয়েছে যারা ৪৫ সেকেন্ডে ব্রাশ করা শেষ করে তাদের তুলনায় যারা ২ মিনিট ধরে ব্রাশ করে তাদের দাঁতের প্ল্যাক ক্ষতি হয় দ্রুত।

প্রতিদিন ব্রাশ করার পাশাপাশি মাউথওয়াশ ব্যবহার করাও খুব জরুরি। এর ফলে দাঁতের এনামেল ঠিক থাকে এবং ক্ষতিকারক ব্যাকটেরিয়া থেকে মুক্তি দেয়।

আজকের পত্রিকা/রিয়া/এমএইচএস

SOURCEই টাইমস