অনুরুপা চক্রবর্তী ও পরিচালক পাভেল। ছবি: সংগৃহীত

সারা বিশ্বে যৌনবিরোধী আন্দোলন হ্যাশ ট্যাগ ‘মিটু’ এর আঁচ এবার টলিউডেও। ‘রসগোল্লা’ সিনেমার পরিচালক পাভেলের বিরুদ্ধে যৌনহয়রানির অভিযোগ উঠল। টলিউড অভিনেত্রী অনুরুপা চক্রবর্তীর ফেসবুকের একটি পোস্টকে ঘিরে ছড়ায় চাঞ্চল্য। একটি পোস্ট দেন ফেসবুকে, সেখানেই তিনি জানান এ কথা। প্রায় তিন বছর আগের এক অভিজ্ঞতার কথা জানান অনুরুপা।

বেশ কয়েকবছর আগে অডিশনের সূত্রে অনুরুপার আলাপ হয় পাভেলের সঙ্গে। তখন রসগোল্লা সিনেমার জন্য অভিনেতা অভিনেত্রীর খোঁজ চলছিল। আর এই সিনেমার জন্য পাভেল অনুরুপাকে চূড়ান্ত করেন পাভেল।

যৌন হয়রানির অভিযোগ এনে অনুরুপা বলেন, ‘চিত্রনাট্য নিয়ে আমার বসতে হতো পাভেলেস সঙ্গে। মাঝেমাঝে তার বাড়িতেও যেতে হতো আমাকে। একদিন হঠাৎ পেছন থেকে আমায় জড়িয়ে ধরে চুমু খেতে শুরু করে পাভেল। আমি কোনো রকম তাকে ছাড়িয়ে নিয়ে তার বাড়ি থেকে পালিয়ে আসি।’

অনুরুপার কাছে থেকে জানা যায়। পাভেল সংসার জীবন সুখের ছিল না। তাই পাভেল তাকে বিয়ের প্রস্তাব দেয়। এবং তাকে মাঝেমাঝে বিরক্ত করতে থাকে। যদিও অভিযোগ অস্বীকার করে পরিচালক পাভেল বলেন, ‘২০১৬ সালের ঘটনা এখন কেন বলা হচ্ছে। এমন অভিযোগ তো আগে করা সহজ হতো। তখন আমাকে কেউ চিনতো না। এখন সিনেমাটি মুক্তি পাবে, এখন কেন এসব কথা বলছে।’

উল্লেখ্য, বিরসা দাশগুপ্তর ‘ক্রিসক্রস’ ছবিতে কাজ করেছেন অনুরুপা। আর ‘বাবার নাম গান্ধিজী’ ছবি দিয়ে টলিউডে পা রাখেন পাভেল। তবে ‘রসগোল্লা’ সিনেমার মধ্য দিয়ে পাভেল জনপ্রিয়তা পায়।