বন্দুকযুদ্ধ।

কক্সবাজারের পেকুয়ায় র‍্যাবের সঙ্গে ‘বন্ধুকযুদ্ধে’ উপকূলের শীর্ষ জলদস্যু কামাল হোসেন (৩০) প্রকাশ বাদশা নিহত।এসময় বিপুল পরিমাণ অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করা হয়।

মঙ্গলবার (২০ আগস্ট) ভোর ৪টার দিকে উপজেলার সমুদ্র উপকূলীয় এলাকার মগনামা ইউনিয়নের মগনামা শরৎঘোনা বেড়িবাঁধে বন্দুকযুদ্ধের এই ঘটনাটি ঘটে।

নিহত বাদশা বাঁশখালী ছনুয়া ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের টেকপাড়া এলাকার আবুল কাশেমের পুত্র।

র‍্যাবের দাবী, নিহত মোঃ বাদশা জলদস্যু বাহিনীর সক্রিয় সদস্য।

ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে বলে পেকুয়া থানা পুলিশ জানিয়েছে।

পেকুয়া থানার ডিউটি অফিসার এসআই দিদারুল ইসলাম জানান, মগনামায় ডাকাতির প্রস্তুতি নেওয়ার খবর পেয়ে র‌্যাব মঙ্গলবার ভোরে অভিযানে যায়।
র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে গুলি ছোড়ে একদল জলদস্যু। পাল্টা জবাবে র‌্যাবও গুলি চালায়। বেশ কিছুক্ষণ উভয় পক্ষে চলে বন্দুকযুদ্ধ। এতে ঘটনাস্থলে একজন নিহত হয় এবং অন্যরা পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থল থেকে নিহত জলদস্যুর লাশ উদ্ধার করা হয়।

এ কর্মকর্তা আরও জানান, নিহত মোঃ বাদশার বিরুদ্ধে ডাকাতি ও জলদস্যুতার অভিযোগে বহু মামলা রয়েছে।

এই বিষয়ে বাঁশখালী থানার তদন্ত ওসি কামাল হোসেন বলেনঃ পেকুয়ায় র‍্যাবের সাথে বন্দুকযুদ্ধে বাঁশখালীর কামাল হোসেন প্রকাশ বাদশা ডাকাত নিহত হয়েছে। তার বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে।

জাহেদুল ইসলাম মিরাজ/বাঁশখালী