নায়িকা পূর্ণিমার জন্মদিনে ফেরদৌসের উপহার। ছবি : সংগৃহীত

বাংলা চলচ্চিত্রের একসময়ের জনপ্রিয় নায়িকা পূর্ণিমা। বর্তমান সময়ে তাকে আগের মতো আর রুপালি পর্দায় না দেখা গেলেও তরুণ প্রজন্মের মাঝে তার সৌন্দর্যের বেশ সুনাম রয়েছে। ১১ জুলাই বৃহস্পতিবার ছিলো এই নায়িকার জন্মদিন।

পূর্ণিমার জন্মদিনে তাকে উপহার দিয়েছেন তারই সহকর্মী ফেরদৌস। তবে যেমন তেমন কোনো উপহার নয়, তিনি উপহার দিয়েছেন পুরোনো স্মৃতি। অবাক করা হলেও এটাই সত্যি। ফেরদৌস একটি ভিডিও বার্তায় পূর্ণিমাকে এই উপহার দেন। ভিডিওর শুরুতে পূর্ণিমাকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়ে ফেরদৌস বলেন, ‘তোমার বাসায় ফুল ও গিফট পাঠিয়েছি। নিশ্চয় তুমি পেয়েছ। এবার তোমার জন্য একটি ভার্চুয়াল প্রেজেন্টেশন তৈরি করেছি। এটা দেখলে তুমিও স্মৃতিকাতর হবে।’

তখনই ভিডিওতে দেখা যায়, পূর্ণিমা ও ফেরদৌস অভিনীত ‘সন্তান যখন শত্রু’ ছবির একটি গান- ‘এমন মিষ্টি একটা বউ। গানটির ভিডিও শেষ করার পর একই গানের মঞ্চ পারফর্মের ভিডিও দেখানো হয়। যেখানে ইটিভির মঞ্চে একই গানের সঙ্গে পূর্ণিমা ও ফেরদৌসকে নাচতে দেখা যায়।

উল্লেখ্য, চট্টগ্রামের ফটিকছড়িতে ১৯৮১ সালের ১১ জুলাই জন্মগ্রহণ করেন পূর্ণিমা। চট্টগ্রামেই কেটেছে তার শৈশব ও প্রাথমিক শিক্ষা জীবন। অভিনয়ের প্রতি আগ্রহ থেকেই চলচ্চিত্রে নাম লেখান। জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত ‘এ জীবন তোমার আমার’চলচ্চিত্রের মাধ্যমে ১৯৯৮ সালে ঢাকাই চলচ্চিত্রে পথচলা শুরু করেন পূর্ণিমা। এই ছবিতে তার বিপরীতে ছিলেন রিয়াজ। প্রথম ছবিতেই বাজিমাৎ করেন পূর্ণিমা। এরপর প্রায় দুই যুগের অভিনয় ক্যারিয়ারে শতাধিক দর্শকনন্দিত ছবি উপহার দিয়েছেন।

পূর্ণিমা অভিনীত জনপ্রিয় চলচ্চিত্রগুলোর মধ্যে রয়েছে এফ আই মানিক পরিচালিত অপরাধ-নাট্যধর্মী লাল দরিয়া (২০০২), মতিউর রহমান পানু পরিচালিত প্রণয়ধর্মী মনের মাঝে তুমি (২০০৩), চাষী নজরুল ইসলাম পরিচালিত যুদ্ধভিত্তিক মেঘের পরে মেঘ (২০০৪) ও নাট্যধর্মী সুভা, এবং এস এ হক অলিক পরিচালিত প্রণয়ধর্মী হৃদয়ের কথা (২০০৬) ও আকাশ ছোঁয়া ভালোবাসা (২০০৮) ইত্যাদি। পাশাপাশি ছোট পর্দা, অর্থাৎ টেলিভিশনেও করেছেন চমৎকার কিছু কাজ। কাজী হায়াৎ পরিচালিত ‘ওরা আমাকে ভালো হতে দিল না’ ছবির জন্য পূর্ণিমা সেরা অভিনেত্রী হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন।

২০০৭ সালের ৪ নভেম্বর পারিবারিকভাবে আহমেদ জামাল ফাহাদের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন তিনি। ২০১৪ সালের ১৩ এপ্রিল কন্যাসন্তান জন্ম দেন এ অভিনেত্রী। মেয়ের নাম রেখেছেন তিনি আরশিয়া উমাইজা। স্বামী সংসার নিয়ে ভালোই কাটছে পূর্নিমার জীবন।

আজকের পত্রিকা/কেএইচআর/