খুলনা-সাতক্ষীরা মহাসড়কের সাতক্ষীরার পাটকেলঘাটায় মাহেন্দ্র উল্টে চাপা পড়ে চালক আব্দুস সামাদ মোড়ল নিহত হয়েছেন।

সোমবার সকাল ৯টার দিকে থানার হারুন-অর-রশিদ কলেজ এলাকায় এ দূর্ঘটনাটি ঘটে।

নিহত আব্দুস সামাদ মোড়ল (৫৫) পাটকেলঘাটা থানার নগরঘাটা এলাকার মৃত.আছির মোড়লের ছেলে। তিনি পেশায় মাহেন্দ্রচালক।

হারুন-অর-রশিদ কলেজ মোড় এলাকার বাসিন্দা সেলিম হোসেন জানান, সাতক্ষীরা থেকে মাহেন্দ্র নিয়ে যাত্রী না নিয়ে একা পাটকেলঘাটা ফিরছিলেন আব্দুস সামাদ।

পথিমধ্যে বিনেরপোতা বাইপাস সড়কের সামনে থেকে ট্রাফিক পুলিশ তাকে দাঁড়ানোর সিগন্যাল দেয়। তবে সিগন্যাল অমান্য করে আব্দুস সামাদ মাহেন্দ্র দ্রুত চালিয়ে পাটকেলঘাটার দিকে চলে আসে। পেছন থেকে ধাওয়া করে ট্রাফিক পুলিশের লোকজন।

দ্রুত গতিতে মাহেন্দ্র চালাতে গিয়ে হারুন-অর-রশিদ কলেজের পাশে এসে রাস্তার মধ্যে উল্টে যায় মাহেন্দ্র।

এ সময় মাহেন্দ্রর নিচে চাপা পড়ে চালক সামাদ। ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

পাটকেলঘাটা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ওয়াহিদ মোর্শেদ বলেন, স্থানীয়রা বলছেন পুলিশের ধাওয়া খেয়ে মাহেন্দ্র উল্টে চাপা পড়ে নিহত হয়েছেন চালক সামাদ।

ঘটনাস্থলে রয়েছি। তদন্ত না করে এ ব্যাপারে বিস্তারিত বলা যাবে না।

এদিকে, সাতক্ষীরা ট্রাফিক ইন্সপেক্টর কামরুল ইসলাম বলেন, বিনেরপোতা বাইপাস সড়ক এলাকায় ট্রাফিকের কোন সদস্য সেখানে ছিল না। কারা ধাওয়া করেছে আমার জানা নেই। আর মাহেন্দ্রচালক সিগন্যাল অমান্য না করলে এমন দূর্ঘটনা হয়তো ঘটতো না।