পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় গুলিবিদ্ধ অবস্থায় সগীর মোল্লা (৪৮) নামে এক ডাকাতকে আটক করেছে পুলিশ। বুধবার (১৫ জানুয়ারি) সকালে উপজেলার ভেচকি গ্রামের আলম হাওলাদারের বাড়ির খড়ের গাদা থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় তাকে উদ্ধার করা হয়।

সগীর মোল্লা পার্শ্ববর্তী বরগুনা জেলার বামনা উপজেলার ডুষখালী গ্রামের নাদের মোল্লার ছেলে। পুলিশ সুপার হায়াতুল ইসলাম খান জানান, সগীর মোল্লা আন্তজেলা ডাকাত দলের সদস্য।

মঠবাড়িয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাসুদুর রহমান জানান, ভোরে ভেচকি গ্রামের বাসিন্দা আলম হাওলাদার ডাকাত সগীর মোল্লাকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় বাড়ির সামনে খড়ের গাদার মধ্যে কাতরাতে দেখে স্থানীয় চৌকিদারকে খবর দেন। পরে চৌকিদার ঘটনাস্থলে গিয়ে পুলিশকে খবর দেন। খবর পেয়ে পুলিশ গুরুতর অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। তার অবস্থা গুরুতর মনে হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে পাঠায়।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসক মনিরুজ্জামান বলেন, সগীর মোল্লার ডান কান বিছিন্ন ও মাথায় গুলির চিহ্ন রয়েছে। তার অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

জেলা পুলিশ সুপার হায়াতুল ইসলাম খান জানান, গুলিবিদ্ধ সগীর মোল্লা আন্তজেলা ডাকাত দলের সক্রিয় সদস্য। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় চারটি মামলার খবর পাওয়া গেছে। তার বিরুদ্ধে আরও মামলা থাকতে পারে।

শেখ রিয়াজ আহম্মেদ নাহিদ/পিরোজপুর