২৫ জুন রাজধানীর প্যান প্যাসিফিক সোনার গাঁ’তে পিপিপি’র মাধ্যমে বিটিএমসি ’র চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী বক্তব্য রাখছেন। ছবি : সংগৃহীত

সারা পৃথিবীর মধ্যে বাংলাদেশই প্রথম পিপিপি (পাবলিক প্রাইভেট পার্টনারশিপ) এর মাধ্যমে দেশের বন্ধ টেক্সটাইল মিলগুলোকে চালু করার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী ।

তিনি বলেন, ‘বন্ধ এসব মিলসমূহ পুনরায় চালু হলে এসকল শিল্প-প্রতিষ্ঠানে নতুন কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরী হবে। এ লক্ষ্যে বর্তমান সরকার পর্যায়ক্রমে দেশের সকল বন্ধ টেক্সটাই মিলগুলো পিপিপি’র মাধ্যমে চালু করার প্রচেস্টা করছে’ ।

২৫ জুন মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর হোটেল প্যান প্যাসিফিক সোনার গাঁ’তে পিপিপি’র মাধ্যমে বাংলাদেশ টেক্সটাইল মিল কর্পোরেশনের ( বিটিএমসি) ’র আহমেদ বাওয়ানী টেক্সটাইল মিলস লিমিটেড মিলটি কনসোর্টিয়াম অব তানজিনা ফ্যাশন লিমিটেডের মাধ্যমে পরিচালিত হওয়ার চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন।

বিটিএমসির পক্ষে চুক্তি স্বাক্ষর করেন বিটিএমসি’র চেয়ারম্যান মোহাম্মদ কামরুজ্জামান এবং কনসোর্টিয়াম অব তানজিনাফ্যাশন লিঃ এর পক্ষে হাসানুল মুজিব । ছবি : সংগৃহীত

অনুষ্ঠানে বিটিএমসির পক্ষে চুক্তি স্বাক্ষর করেন বিটিএমসি’র চেয়ারম্যান মোহাম্মদ কামরুজ্জামান এবং কনসোর্টিয়াম অব তানজিনাফ্যাশন লিঃ এর পক্ষে হাসানুল মুজিব ।

এ সময় মাগুরা-১ আসনের সংসদ সদস্য সাইফুজ্জামান শিখর, বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ইসরাফিল আলম এমপি,মোমিন মন্ডল এমপি, বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত সচিব গুলনার নাজমুন নাহার, বিটিএমসি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ কামরুজ্জামান, বিজিএমইএ এর সাবেক সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান, তানজীনা ফ্যাশন লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক হাসানুল মুজিব প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘ দেশের বিভিন্ন ব্যবসা বান্ধব স্থানে বিটিএমসি’র ৬৩৬.৩৮ একর জমি অব্যবহৃত অবস্থায় পড়ে আছে। এই জমিসমূহ পিপিপি’র মাধ্যমে উৎপাদন খাতে ব্যবহারের ফলে একদিকে যেমন সংশ্লিষ্ট শিল্প প্রতিষ্ঠান লাভবান হবে । অপরদিকে, দেশের জিডিপি বৃদ্ধি, কর্মসংস্থান সৃষ্টির মাধ্যমে অর্থনীতি আরো সুদৃঢ় হবে।

তিনি আরও বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী গত ২০১৪ সালের ১২ অক্টোবর বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয় পরিদর্শনকালে বিটিএমসি ’র বন্ধ মিলসমূহ চালু করার বিষয়ে নির্দেশনা প্রদান করেন। বিটিএমসির বন্ধ মিলসমূহ পিপিপি’র মাধ্যমে পরিচালনার জন্য বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয় সিদ্ধাস্ত গ্রহণ করেছে’।

একই সাথে পর্যায়ক্রমে পিপিপির মাধ্যমে বিটিএমসির হতে ২৫টি মিলের মধ্যে ১৬টি মিল পিপিপি এর আওতায় পারিচালনার জন্য অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি (সিসিইএ) নীতিগত অনুমোদন পাওয়া গেছে বলে মন্ত্রী জানান।

উল্লেখ্য , এখন থেকে পিপিপি’র মাধ্যমে বিটিএমসি’র আহমেদ বাওয়ানী টেক্সটাইল মিলস লিঃ, ডেমরা মিলটি কনসোর্টিয়াম অব তানজিনা ফ্যাশন লিঃ এর মাধ্যমে পরিচালিত হবে । এ জন্য কনসোর্টিয়াম অব তানজিনাফ্যাশন লিঃ কে লেটার অব অ্যাওয়ার্ড (এলওএ) প্রদান করা হয়েছে।
এছাড়াও ১৬টি মিল হতে প্রথম পর্যায়ে স্বল্পতম সময়ের মধ্যে ৪টি মিল (আর.আর.টেক্সটাইল মিলস লিঃ,দোস্ত টেক্সটাইল মিলস লিঃ,মাগুরা টেক্সটাইল মিলস লিঃ,রাজশাহী টেক্সটাইল মিলস) এর আন্তর্জাতিক দরপত্র আহবান করা হবে।

আজকের পত্রিকা/আর.বি/