দুস্থ নারী-পুরুষের মাঝে বস্ত্র বিতরণ করেছেন রাজশাহীর দায়িত্বপ্রাপ্ত সহকারী ভারতীয় হাই কমিশনার সঞ্জীব কুমার ভাটি

দুর্গা পূজার অষ্টমীতে রোববার পাবনা সদর ও চাটমোহর উপজেলায় বিভিন্ন মন্দির পরিদর্শন, দুস্থ নারী-পুরুষের মাঝে বস্ত্র বিতরণ করেছেন রাজশাহীর দায়িত্বপ্রাপ্ত সহকারী ভারতীয় হাই কমিশনার সঞ্জীব কুমার ভাটি।

তিনি বিকেলে চাটমোহর উপজেলার ঐতিহ্যবাহী বোঁথর চড়ক মন্দির পরিদর্শন করে পূজা দানে অংশ নেন। পরে সহকারী হাই কমিশনার শারদীয় দুর্গোৎসবের মহাষ্টমী উপলক্ষে পৌর শহরের হরিসভা, দোলবেদীতলা, পুরাতন বাজারে কালি মন্দি মন্দির পরিদর্শন করেন।

এরপর সন্ধ্যায় পাবনার প্রধান জয়কালী বাড়ি ও মা মন্দির পরিদর্শন করেন। এ সময় সহকারী ভারতীয় হাই কমিশনার সঞ্জীব কুমার ভাটি কে ফুলের শুভেচ্ছা দিয়ে বরণ করেন পৃথক দুটি মন্দিরে যথাক্রমে জয়কালী বাড়ি মন্দির কমিটির সভাপতি বিনয় জ্যোতি কুন্ডু এবং মা মন্দিরে পাবনা প্রেসক্লাবের সভাপতি প্রফেসর শিবজিত নাগ।

এ দুটি মন্দির পরিদর্শন করে তিনি রামকৃষ্ণ মিশন মন্দির চত্বরে রোটারী ক্লাব অব পাবনার আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে শতাধিক দুস্থ নারী ও পুরুষের মাঝে বস্ত্র বিতরণে অংশ নেন।

এ উপলক্ষে রোটারী ক্লাব অব পাবনার সভাপতি মোশারফ হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন, পাবনা সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইবনে মিজান, পাবনা প্রেসক্লাবের সম্পাদক আঁখিনুর ইসলাম রেমন, রোটারী ক্লাব অব পাবনার সাবেক সভাপতি বিনয় জ্যোতি কুন্ডু, আলহাজ্ব মাহাতাব উদ্দিন বিশ্বাস প্রমুখ।

এ সময় প্রধান অতিথির বক্তব্যয় সঞ্জীব কুমার ভাটি বলেন, পাবনায় এসে সত্যি আমি অভিভূত হয়েছি। যে পাবনা তথা বাংলাদেশের মানুষ মনে প্রাণে এই সতিকে লালন করে‘‘ ধর্ম যার যার উৎসব সবার’’, প্রকৃত অর্থে ভারত সরকার এই বক্তব্যকে সমর্থন করে। এ জন্য বাংলাদেশ সরকারের প্রতি বিশেষ ভাবে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। পাশাপাশি তিনি দূর্গা পুজা উপলক্ষে প্রশাসনের নেয়া নিরাপত্তার ব্যাপারে সন্তোষ প্রকাশ করেন।

শাহীন রহমান/পাবনা