পশ্চিমবঙ্গের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী

পশ্চিমবঙ্গের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক। ফলে শুক্রবার রাতে তাকে কলকাতার এক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাকে দেখতে রাতেই হাসপাতালে ছুটে গেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

প্রচণ্ড শ্বাসকষ্টজনিত কারণে শুক্রবার রাত ৮টা ৩৫ মিনিট নাগাদ কলকাতার উডল্যান্ডস হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বুদ্ধদেবকে। গত বেশ কিছুদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন পশ্চিমবঙ্গের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী। এর কয়েকদিন আগেই ফুসফুসে সংক্রমণ ধরা পড়ে তার। শুক্রবার প্রবল শ্বাসকষ্ট শুরু হলে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হাসপাতালে তাকে বিশেষ পর্যবেক্ষণে রেখেছেন চিকিৎসকরা।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের শারীরিক অবস্থা ভালো না। রক্তচাপ ৫০/৭০-এ নেমে গিয়েছে। রক্তে হিমোগ্লোবিন কমছে। পরিস্থিতি আরও খারাপ হলে তাকে লাইফ সাপোর্টে নেয়া হতে পারে।

এদিকে বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের অসুস্থতার খবর পাওয়া মাত্র রাতেই হাসপাতালে ছুটে যান মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার চিকিৎসায় যাতে কোনও ক্রটি না থাকে, তা নিয়ে হাসপাতালে বসে চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলেন মমতা। এরপরই দ্রুত গঠন করা হয় পাঁচ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড। পাঁচ সদেস্যের বোর্ডে রয়েছেন কার্ডিওলজিস্ট ও মেডিসিন বিশেষজ্ঞরা।

উল্লেখ্য, ভারতের কমিউনিষ্ট পার্টি (মার্কসবাদী) দলের পলিটব্যুরোর সদস্য বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য ২০০০ সালের ৬ নভেম্বর পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। তিনি কয়েক মেয়াদে বিজয়ী হয়ে দীর্ঘদিন এই দায়িত্ব পালন করেন। পরে ২০১১ সালের ১৯ মে পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভার সাধারণ নির্বাচনে পরাজিত হয়ে মুখ্যমন্ত্রী থেকে পদত্যাগ করেন।