সন্ধ্যা পৌনে ৬টার দিকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফনকার্য সম্পন্ন করা হয়। ছবি : সংগৃহীত

শেষ পর্যন্ত নিজের স্বপ্নের বাসভবন রংপুরের পল্লী নিবাসেই চিরদিনের জন্য শায়িত হলেন সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এরশাদকে প্রথমে বনানীর সামরিক কবরস্থানে দাফনের কথা থাকলেও শেষ পর্যন্ত পল্লী নিবাসই হলো তাঁর শেষ আশ্রয়স্থল।

১৬ জুলাই মঙ্গলবার বাদ জোহর বেলা আড়াইটায় রংপুরের কালেক্টরেট ঈদগাহ ময়দানে জানাজা শেষে ঢাকায় নিয়ে আসার পথে তাঁর মরদেহ বহনকারী গাড়ি আটকে দেওয়া হয়। এ সময় জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীরা স্লোগান দিয়ে এরশাদকে রংপুরে দাফনের দাবি জানান। পরে রংপুরের মানুষের ভালোবাসার প্রতি শ্রদ্ধা রেখে পল্লী নিবাসেই সাবেক রাষ্ট্রপতি এরশাদকে দাফন করার সিদ্ধান্ত নেয় জাতীয় পার্টি। এরশাদের স্ত্রী রওশন এরশাদ ও ছোটভাই জিএম কাদেরসহ পরিবারের সম্মতিতে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

জানাজা শেষে চার কিলোমিটার হেঁটে এরশাদের মরদেহ বহনকারী গাড়ি তাঁর বাসভবন রংপুরের পল্লী নিবাসে নিয়ে যান দলীয় নেতাকর্মীরা। এরপর সন্ধ্যা পৌনে ৬টার দিকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফনকার্য সম্পন্ন করা হয়।

আজকের পত্রিকা/সিফাত