লোডশেডিংয়ের প্রতিবাদে মানববন্ধন। ছবি : সংগৃহীত
গাইবান্ধার পলাশবাড়ীতে বিদ্যুতের ঘনঘন লোডশেডিংয়ের কবলে সর্বস্তরের জনজীবন অতিষ্ট হয়ে পড়েছে।
বিশেষ করে চলতি পবিত্র রমজান মাসে ইফতার-তারাবী-সেহেরী কোনকিছুতেই যেন রক্ষা নেই। নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুত সরবরাহের দাবীতে সোমবার বিকেলে সদরের জিরো পয়েন্ট চৌমাথা মোড় চত্বরে ‘পরিবর্তন চাই’ একটি সামাজিক সংগঠনের উদ্যোগে এক জনাকীর্ণ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধনে বক্তারা বলেন,বিগত ২০০৯ সালের তুলনায় বর্তমানে ৪ গুন অর্থাৎ ১৮ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুত উৎপাদন হচ্ছে।পলাশবাড়ীতে শুধু ভারী নয়-এমনকি তেমন কোন ক্ষুদ্র শিল্প কলকারখানা গড়ে উঠেনি।এক্ষেত্রে আবাসন পর্যায়ে বিদ্যুতের কোন লোডশেডিংই থাকার কথা নয়।অথচ লোডশেডিংয়ের যাঁতাকলেে বাসা-বাড়ী ও অফিসসহ সর্বত্রের ভুক্তভোগী  মানুষ দূর্বিষহ অবস্থায় পড়েছে।
এছাড়া সরকার ঘোষিত ২০১৮ সালের মধ্যে প্রতিটি ঘরে ঘরে বিদ্যুত সরবরাহ কর্মসূচি চলমান থাকলেও বিদ্যুতের ধরাশায়ী কবল থেকে মানুষের উত্তরণের পথে মিলছে না।দিন-রাতের ধারাবাহিকতায় অসংখ্যবার বিদ্যুতের যাওয়া আসার লুকোচুরির কথা উল্লেখ ছাড়াও অনাকাঙ্ক্ষিত লোডশেডিংয়ের তিব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুত সরবরাহসহ অসহনীয় ভোগান্তির কবল থেকে এলাকার সর্বস্তরের মানুষ সংশ্লিষ্ট উর্ধতন কর্তৃপক্ষের প্রয়োজনীয় হস্তক্ষেপ কামনা করেন।এতে বক্তব্য রাখেন উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মামুনার রশিদ সুমন,পরিবর্তন চাই গাইবান্ধা জেলা সমন্বয়ক রাশেদুজ্জামান,সেচ্ছাসেবক সাকিব আল-হাসান ও শাকিল তালুকদার প্রমুখ।
আজকের পত্রিকা/ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা/রাফাত/এমএইচএস