আদালত। প্রতীকী ছবি

বাড়ী করার জন্য ত্রিশ লক্ষ টাকা যৌতুক দাবী করার অভিযোগে পটুয়াখালী বাউফল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক এ.এস.এম সায়েম এর বিরুদ্ধে যৌতুক মামলা দায়ের করেছেন স্ত্রী ডাঃ সানজিদা ইসলাম।

পটুয়াখালী বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট ২য় আমলী আদালতে ডাঃ এ.এস.এম সায়েম ও তাঁর বাবা-মাকে আসামী করে সানজিদা ইসলাম বাদী হয়ে যৌতুক নিরোধ আইনের ৩ ধারায় গত ১৫ই জানুয়ারী ওই মামলা ( সি.আর মামলা নং-৩২) দায়ের করেন।

আদালত মামলা আমলে নিয়ে ডাঃ সায়েমের বিরুদ্ধে সমন জারি করেছেন।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ২০১৫ সালের ২৮ এপ্রিল বাউফল পৌরসভার আট নং ওয়ার্ডের মোঃ হাবিবুল্লাহ এর ছেলে এ.এস.এম সায়েমের সঙ্গে মদনপুরা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ রফিকুল ইসলাম তালুকদারের মেয়ে সানজিদা ইসলাম জেসমিনের বিবাহ কার্য সম্পন্ন হয়। এতে সানজিদার বাবার সর্ব সাকুল্যে বিশ লক্ষ টাকা খরচ হয়।

এতেও আসামীরা সন্তুষ্ট হতে না পেরে স্বামী সায়েম প্রায়শই যৌতুকের দাবীতে সানজিদাকে বাবার বাড়ী ফেলে রাখতেন এবং প্রায়ই শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করতেন। বিষয়টি মিমাংসার জন্য গত ১০ জানুয়ারী আসামীদের সঙ্গে সানজিদার বাবার বাসায় আলোচনায় বাসা হয়।

এ সময়ে সানজিদার স্বামী ডাঃ সায়েমকে বাউফলে বাড়ী করার জন্য ত্রিশ লক্ষ টাকা যৌতুক দাবী করেন আসামীরা। তবে যৌতুক দাবী করার বিষয়ে জানতে ডাঃ সায়েমের সাথে মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তিনি কোন ফোন রিসিভ করেননি।

বাউফল উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা ডাঃ পি.কে সাহা বলেন, এ ব্যাপারে আমি কিছু জানি না। আমাকে কেউ অবহিত করে নাই।

পটুয়াখালী সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, বিষয়টি আপনার মাধ্যমে জানলাম। যেহেতু এটা বিচারাধীন তাই এ ব্যাপারে আমার কোন বক্তব্য নেই।

-জান্নাতুল ফেরদৌস