নেতার বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশের জেরে অপপ্রচার, রাবি রিপোর্টার্স ইউনিটির নিন্দা

রাজশাহীর প্রথিতযশা সাংবাদিক কাজী শাহেদ ও রফিকুল ইসলামের নামে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও একটি অনলাইন নিউজ পোর্টালে অপপ্রচার ও আপত্তিকর লেখার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার্স ইউনিটি। শুক্রবার বিকেলে রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি মর্তুজা নুর ও সাধারণ সম্পাদক আহমেদ ফরিদ এক বিবৃতিতে এই ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

সংগঠনের পক্ষ থেকে পাঠানো সেই বিবৃতি বলা হয়েছে, সম্প্রতি রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল আলম বেন্টুকে নিয়ে একাধিক সংবাদ প্রকাশ করেন সাংবাদিক কাজী শাহেদ ও রফিকুল ইসলাম।। তাদের লেখনীতে উঠে আসে ছাত্রলীগ নেতা হত্যা মামলার যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামি বেন্টু জামিন নিয়ে কীভাবে বালুমহাল নিয়ন্ত্রণ করে শত কোটি টাকার মালিক হয়েছেন। এরপর থেকেই এ দুই সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করা হচ্ছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করে দুইজন গণমাধ্যমকর্মীর চরিত্র হনন করা হচ্ছে। ব্যক্তিগত ও পারিবারিক জীবন নিয়ে নানা রকম মিথ্যা ও বিভ্রান্তিকর তথ্য অপপ্রচার করা হচ্ছে।

বিবৃতিতে আরো বলা হয়েছে, জামায়াত-বিএনপির ফেসবুকের যেসব পেজ ব্যবহার করে বিভিন্ন সময়ে যে অপপ্রচার চালায়, সেই সকল পেজ থেকে এই দু’জন সাংবাদিক সম্পর্কে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। সেখানে এমন সব তথ্য দেওয়া হয়েছে, যা কাল্পনিক। আজিজুল আলম বেন্টু ও তার সহযোগিরা যে সব কর্মকাণ্ড শুরু করেছে তা গণমাধ্যমের প্রকৃত কর্মীদের কণ্ঠরোধ করার এক গভীর ষড়যন্ত্র। তারা যতই ষড়যন্ত্র করুক না কেন, সাংবাদিকদের কণ্ঠ তারা রোধ করতে পারবে না। অন্যায়, দুর্নীতি, খুনি ও সন্ত্রীদের বিরুদ্ধে সাংবাদিকদের লিখনী অব্যাহত থাকবে।

এমএ জাহাঙ্গীর/রাবি