নেইমার। ছবি: ভেরাইটি

ব্রাজিলের সর্বকালের সেরা কে? এই প্রশ্ন শোনা মাত্র একটু কমই ভাবতে হয় পাঠকদের। প্রায় এক বাক্যেই বলে দেওয়া যায় নামটি হল ব্রাজিলের কিংবদন্তি পেলে। তবে পেলের পরে অবস্থান করবে কে? নিশ্চয়ই প্রথম প্রশ্নর মতো এতটা সহজে খুঁজে পাওয়া যাবে না এর উত্তর। ফুটবলের যুগে যুগে অনেক প্রতিভাই জন্ম দিয়েছে ফুটবল সাম্বার দেশ ব্রাজিল। তবে কিছুদিন আগে ব্রাজিলিয়ান পত্রিকা প্ল্যাকার ব্রাজিলের সর্বকালের সেরা খেলোয়াড়ের তালিকা করেছিল। যাতে পেলের পরের নামটা ছিল নেইমারের, যা বিতর্ক তুলেছে ব্রাজিলজুড়ে। ব্রাজিলে কিংবদন্তির তালিকা করতে গেলে তো কলমের কালি ফুরানোর দশা হবে। বিশ্বকাপজয়ীই কত খ্যাতিমান আছেন। সবাইকে ছাপিয়ে নেইমার দুইয়ে?

নেইমার এখনো ব্রাজিলকে বিশ্বকাপ জেতাতে পারেননি। গত দুবারই প্রত্যাশার বেলুনটাকে ফট্টাস করে দিয়েছেন। ফলে, তাকে পেলের পরের আসনটা দিতে রাজি নন ব্রাজিলেরই অনেকে। হোসে মরিনহোর মতে, পেলের সমান হতে নেইমারকে ব্রাজিলের জার্সিতে জেতাতে হবে বড় কিছু। নেইমারকে বর্তমান যুগের খেলোয়াড়দের কাতারে সেরা মনে করেন অনেকে। নিয়মিত চোট তাকে সে খেলা দেখানোর সময় দিচ্ছে কোথায়? সঙ্গে রয়েছে অনিয়মিত ফর্ম। চোট আর অনিয়মিত ফর্মের কারণে গত মৌসুমে ব্যালন ডি’অর তালিকার সেরা দশেও দেখা মেলেনি। এ বছরেও সে পথেই হাঁটছেন নেইমার। চোট কাটিয়ে ফিরতে না ফিরতেই আবারও চোটের কবলে। প্যারিসের জার্সিতে লিগ ওয়ানে যে জাদু দেখান, সে তুলনায় প্রত্যাশার প্রতিদান দিতে পারেন না চ্যাম্পিয়নস লিগে।

পিএসজির জার্সিতে এখনো বড় কিছু করতে পারেননি নেইমার। তবে বার্সার জার্সিতে চ্যাম্পিয়নস লিগ জিতেছেন। ইউরোপে ছড়ি ঘোরানোর অভিজ্ঞতা কম নেই। তবু এই আন্তর্জাতিক পর্যায়ের ব্যর্থতা পিছিয়ে রাখবে অন্যদের থেকে। তাই মরিনহো মনে করেন ব্রাজিলের হয়ে ৬তম বিশ্বকাপটা আসলে সেরা তারকাদের কাতারে যাওয়ার ক্ষেত্রে এত সমালোচনার মুখে পড়তে হবে না তাকে।

আজকের পত্রিকা/এসএমএস/এমএইচএস/জেবি