স্বাস্থ্য সেবা সহজ করার লক্ষ্যে নীলফামারীতে মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বয়ঃসন্ধিকালীন শিক্ষা ও সেবা কর্ণারের শুভ উদ্বোধন করা হয়েছে।

প্রথম পর্যায়ে এ জেলার ৬০ টি মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এই কার্যক্রমে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্ধোধন করেন মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর মুখ্য সচিব নজিবুর রহমান।

আজ সোমবার সকাল ১১টায় নীলফামারী শিল্পকলা একাডেমিতে বর্ণাঢ্য আয়োজনে এর উদ্ধোধন করেন।

উদ্ধোধনকালে প্রধান অতিথি বলেন, নীলফামারী জেলা প্রশাসনের কর্তৃক গৃহীত উদ্ভাবনী এই উদ্যোগ একটি চমৎকার মডেল। তিনি বলেন, আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নারীদের সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করার ব্যাপারে নীলফামারী জেলা প্রশাসনের কর্তৃক গৃহীত উদ্ভাবনী এই উদ্যোগকে কিশোর কিশোরীর জন্য এসডিজি অর্জনের প্রয়াস হিসাবে গ্রহন করেছেন। এই মডেলকে আমরা সারা দেশে ছড়িয়ে দিতে চাই।
নীলফামারী জেলা প্রশাসক হাফিজুর রহমান চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন প্রধান মন্ত্রী কার্যালয়ের মহা পরিচালক-১ মোহাম্মদ সালাহ উদ্দিন , প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের গর্ভনেন্স ইনোভেশন ইউনিটের মহা পরিচালক মোঃ আশরাফ উদ্দিন। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রবিউল ইসলাম, সিভিল সার্জন ডাঃ রনজিৎ কুমার বর্মন, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান শাহিদ মাহমুদ, জেলা শিক্ষা অফিসার সফিকুল ইসলাম, ইটাখোলা ইউপি চেয়ারম্যান হাফিজুর রশিদ মঞ্জু, ইএসডিওর জানো প্রকল্পের সহকারী প্রকল্প ব্যবস্থাপক পরশিয়া রহমান, নাউতারা অবিউন্নেছা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নাছিরা আক্তার, কিশোরীগঞ্জ বহুমুখী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেনীর ছাত্রী ওয়ালিকা নাজনীন উর্মি।
আনুষ্ঠানিক উদ্ধোধন শেষে প্রধান অতিথি সহ অন্যান্য অতিথিবৃন্দ জেলা শহরের কালেক্টরেট স্কুল এন্ড কলেজে নবনির্মিত বয়ঃসন্ধিকালীন শিক্ষা ও সেবা কর্ণারের উদ্ধোধন করেন।

ইয়াছিন মোহাম্মদ সিথুন/নীলফামারী