নিলামের রেকর্ড ভাঙতে যাচ্ছে ৫০০ বছরের পুরনো ভারতীয় গহনা। ছবি : সংগৃহীত

ভারতের ৪০০টি গহনা, মূল্যবান বস্তু ও রত্নের সংগ্রহ চলতি সপ্তাহে নিলামের সব রেকর্ড ভাঙতে যাচ্ছে। এই সম্পদ ১৫৫.৯ মিলিয়ন ডলার থেকে বেশি দামে বিক্রি হবে বলে জানা গেছে। এটি ইতিহাসে সবচেয়ে মূল্যবান গয়নার নিলাম তৈরি করবে।

১৯ জুন বুধবার নিউইয়র্কের ক্রিস্টির অকশন হাউজের অধীনে মহারাজা ও মুঘলদের ব্যবহৃত মহামূল্যবান গহনার নিলাম অনুষ্ঠিত হবে। এসব শিল্পকর্ম এবং অলঙ্কারগুলি ৫০০ বছরেরও বেশি সময় ধরে ভারতের রাজপরিবার এবং উচ্চবিত্ত সমাজের বৈশিষ্ট্য বহন করে।

স্বর্গের আয়না। ছবি : সংগৃহীত

অকশন হাউজ জানিয়েছে, ‘ভারতের এই প্রাচীন সংগ্রহগুলি বিশ্বের সবচেয়ে মূল্যবান নিলাম হিসাবে বিবেচিত হতে যাচ্ছে। যা ২০১১ সালে এলিজাবেথ টেইলরের ১১৫.৯ মিলিয়ন ডলারের বিক্রি হওয়া গহনার  রেকর্ড ছাড়িয়ে যাবে’।

ক্রিস্টির মতে, গহনার এই ভাণ্ডার যা বর্তমানে কাতার রয়্যালিটির মালিকানাধীন। এটি গহনা এবং মুঘল অলঙ্কারের মধ্যে সবচেয়ে মূল্যবান সংগ্রহ।

এই গহনাগুলোর মধ্যে রয়েছে ৫২.৫৮ ক্যারেটের হীরার আংটি। যার নাম ‘স্বর্গের আয়না’। এটির দাম ১০ মিলিয়ন ডলারেরও বেশি। এটি মুঘল সাম্রাজ্যের শুরুর দিকে ব্যবহৃত হয়।

ক্রিস্টিরের গয়না বিষয়ক আন্তর্জাতিক প্রধান রাহুল কাদাকিয়া সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘এটি আপনার হাতে জীবন্ত ইতিহাস’।

A Jigha, the turban ornament set with old, baguette and pear-shaped diamonds, white gold, fitted with plume holder on the reverse.
মহারাজার ব্যবহৃত হীরক নির্মিত হোয়াইট গোল্ডের পাগড়ি। ছবি : সংগৃহীত

আরেকটি হচ্ছে উজ্জ্বল হীরক নির্মিত হোয়াইট গোল্ডের জিঘা। এটি মূলত একটি পাগড়ি। সাধারণত মহারাজা বিশেষ অনুষ্ঠানগুলোতে এই পাগড়ি পরিধান করতেন। পীপার এবং ব্যাগুয়েট আকৃতির হীরা দিয়ে নির্মিত করা এই অলংকারটি প্রেমের বিচ্ছেদকে ধারণ করে। এটি ১.২ মিলিয়ন থেকে ২.২ মিলিয়ন ডলারের মধ্যে বিক্রি করার অনুমান করা হচ্ছে।

সম্রাট শাহ জাহান যিনি তাজমহল নির্মাণ করেছেন তার ব্যবহৃত একটি ছুরি নিলামে তোলা হবে। ছুরিকাটি জেড দিয়ে তৈরি এবং স্বর্ণ দিয়ে সজ্জ্বিত। এটি নিলামে উচ্চমূল্য পাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

আজকের পত্রিকা/কেএইচআর/