যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে দুর্বৃত্তের গুলিতে শাহেদ (২৭) নামের এক বাংলাদেশি যুবক নিহত হয়েছেন। ২ সেপ্টেম্বর সোমবার ভোররাতে রিচমন্ড হিল এলাকার ১৩০ স্ট্রিট এবং ৯২ এভিনিউতে দুই পক্ষের গুলিবর্ষণের ফলে এমন ঘটনা ঘটে।

নিহত শাহেদ যুক্তরাষ্ট্র মুক্তিযোদ্ধা দলের সভাপতি বাবর উদ্দিনের ছেলে। শাহেদের বাড়ি চট্টগ্রামের সন্দ্বীপ উপজেলার মগধরা ইউনিয়নে।

হামলায় দুজন গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। আহত একজনের বাড়ি বাংলাদেশের সিলেটের, আরেকজনের পরিচয় এখনও জানা যায়নি।

নিউইয়র্ক পুলিশ ডিপার্টমেন্টের একজন মুখপাত্র বলেন, নাইট ক্লাবের সামনে দুই পক্ষের ঝগড়ার এক পর্যায়ে গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটে। এরপরে গুলিবিদ্ধ শাহেদকে জ্যামাইকা হাসপাতালে নেওয়া হলেও কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।

ময়নাতদন্ত শেষে আজ মঙ্গলবার শাহেদের লাশ তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে বলে পুলিশ জানিয়েছে। তাকে নিউ জার্সিতে সন্দ্বীপ সোসাইটির কবরস্থানে দাফন করা হবে বলে পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, নিহতের পিতা বাবর উদ্দিন একজন কন্সট্রাকশন ব্যবসায়ী। শাহেদ ৫ ভাইয়ের মধ্যে দ্বিতীয়। তার মৃত্যুতে যুক্তরাষ্ট্রের সন্দ্বীপ কমিউনিটিতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

-আজকের পত্রিকা/এমএআরএস