ফুডগ্রেড প্লাষ্টিকের তৈরী উন্নত মানের সাইলো ।ছবি :সংগৃহীত

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার ১৩ টি ইউনিয়নে ৮হাজার কৃষি পরিবারের মাঝে ধান, চাউল, বীজ সংরক্ষণের জন্য কৃষি বান্ধব পারিবারিক সাইলো বিতরণ শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যে বুড়িশ্বর, নাসিরনগর সদর, গোকর্ন ৪টি ইউনিয়নে বিতরণ কাজ সম্পন্ন হয়েছে। বাকীগুলোতে পর্যায়ক্রমে বিতরণ করা হবে।

খাদ্য অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে প্রতিটি সাইলো তৈরীতে সরকারের ১৩৭৭ টাকা নির্মাণ ব্যয় হয়েছে। কিন্তু কৃষকের কাছ থেকে প্রতিটি সাইলোর বিপরীতে ৮০ টাকা করে নেওয়া হচ্ছে। কৃষকের দিক চিন্তা করে সরকার ব্যাপক ভর্তুকি দিয়ে সাইলো বিতরণ করছে।

জানা গেছে, সাইলোর উদ্ভাবক ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার হরিপুর ইউনিয়নের নরহা গ্রামের কৃতি সন্তান ও খাদ্য অধিদপ্তরের পিডি ইঞ্জিনিয়ার মোঃ গাজীউর রহমান।

২২মে বুধবার সকাল ১১ টার দিকে খাদ্য অধিদপ্তরের উদ্যোগে বিশ্ব ব্যাংকের অর্থায়নে আধুনিক খাদ্য সংরক্ষণাগার প্রকল্পের মাধ্যমে প্রাকৃতিক দুর্যোগপ্রবন এলাকায় ক্ষতিগ্রস্ত দরিদ্র, প্রান্তিক, ভূমিহীন বর্গাচাষী ও মহিলা খানা প্রধান পরিবারগুলোর মাঝে ফুডগ্রেড প্লাষ্টিকের তৈরী উন্নত মানের সাইলো বিতরণের উদ্ভোধন করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ সাইফুল কবির, উপজেলা চেয়ারম্যান রাফি উদ্দিন আহমেদ।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রুবিনা আক্তার, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ আনিছুজ্জামান, উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা মোঃ শামীম আহম্মেদ, বুড়িশ্বর ইউ/পি চেয়ারম্যান এ টি এম মোজাম্মেল হক সরকার মুকুল, খাদ্য গুদাম ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ সামিউল আলীম, ন্যাশনাল নিউজ ক্লাবের কেন্দ্রীয় সহ আইন বিষয়ক সম্পাদক মোঃ আব্দুল হান্নান।

জানা গেছে দুর্যোগপ্রবণ ১৯ টি জেলার ৬৪টি উপজেলায় ৫ লক্ষ পরিবারকে প্লাষ্টিকের তৈরী উন্নত মানের সাইলো বিতরণের কর্মসূচি গ্রহণ করেছে বাংলাদেশ সরকারের খাদ্য অধিদপ্তর।

আজকের পত্রিকা/হান্নান/নাসিরনগর/ব্রাহ্মণবাড়িয়া