বাচ্চাকে ঘুমানোর পুরো পদ্ধতিটি একটু বেশি কষ্টের হতে পারে। ছবি: সংগৃহীত

পিতামাতা হওয়া কোনো ছেলে খেলা নয়। আপনার বাচ্চাকে ঘুমানোর পুরো পদ্ধতিটি একটু বেশি কষ্টের হতে পারে। তাদের সাবধানে ধরে রাখা, যাতে সামান্যও আঘাত না পায়। অনেক সময় পার হবার পর ও বাচ্চা ঘুমাচ্ছে না? তাহলে আপনি কি করবেন?

সঠিক সময়ে ঘুমানোর অভ্যাস বাচ্চা এবং পিতামাতা দুপক্ষের জন্যই ভালো। ছবি: সংগৃহীত

রুটিন

সঠিক সময়ে ঘুমানোর অভ্যাস বাচ্চা এবং পিতামাতা দুপক্ষের জন্যই ভালো। ঘুমাতে যাওয়ার আগে বাচ্চার হাত মুখ পরিষ্কার করে দিন ও জামা কাপড় পাল্টে দিন। প্রতিদিন এই জিনিস অনুসরণ করুন। এক সময় বাচ্চা ও বুঝতে শুরু করবে যে তার ঘুমের সময় হয়েছে।

সূর্যালোক

নবজাতকদের দিন এবং রাত মধ্যে পার্থক্য বের করা একটি কঠিন কাজ। দিনের বেলায় তারা যেন যথেষ্ট পরিমাণে সূর্যালোক পায় তা নিশ্চিত করুন। দিনের বেলায় সূর্যালোকের সাথে পরিচিত হওয়ার জন্য আপনি আপনার বাচ্চাকেও বাইরে নিয়ে যেতে পারেন।

আপনি যখন তাকে ঘুমানোর চেষ্টা করছেন তখন আপনার বাচ্চার দৃষ্টিভঙ্গি এড়াতে চেষ্টা করুন। ছবি: সংগৃহীত

রাতে লাইট জ্বালাবেন না

আপনার বাচ্চা যদি রাতে হুট করে জেগে যায় তাহলে রুমের লাইট জ্বালাবেন না। তাকে বেশি নড়াচড়া করবেন না। তাকে কিছু সময় দিন। দেখবেন আস্তে আস্তে আবার ঘুমিয়ে পড়বে।

চোখে চোখ

আপনি যখন তাকে ঘুমানোর চেষ্টা করছেন তখন আপনার বাচ্চার দৃষ্টিভঙ্গি এড়াতে চেষ্টা করুন। আপনি যদি বাচ্চার ঘুমানোর সময়ে তার দিকে তাকিয়ে থাকেন তাহলে বাচ্চাও আপনার দিকে তাকিয়ে থাকবে।

ঘুমের আগে তার হাত পা একটু মাসাজ করে দিন। ছবি: সংগৃহীত

নরম কণ্ঠ

ঘুমানোর পরিবেশ মানেই শান্ত পরিবেশ। ঘুমানোর সময় উচ্চস্বরে কথা বলা এড়িয়ে চলতে হবে। প্রয়োজন হলে নরম কণ্ঠে বা ফিস ফিস করে কথা বলুন।

মাসাজ করান

মাসাজ করার পর আপনার শরীরের সব ক্লান্তি দূর হয়ে যায় এবং একটু ঘুম ঘুম আশে, ঠিক তেমনি আপনার বাচ্চার ও ঘুম ঘুম আসবে। তাই ঘুমের আগে তার হাত পা একটু মাসাজ করে দিন।

আজকের পত্রিকা/রিয়া/এমএইচএস