ধর্ষণ। প্রতীকী ছবি

বগুড়ার নন্দীগ্রামে এক মাদ্রাসার ছাত্রীকে (৯) ধর্ষণের চেষ্টার ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে তাঁর পরিবার। এ ঘটনার পর থেকেই পলাতক রয়েছে ঘটনার সাথে জড়িতরা।

মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) রাতে মেয়ের বাবা বাদী হয়ে উপজেলা সদর ইউনিয়নের রনবাঘা কৈগাড়ী গ্রামের কাওছার আলী (১৯) ও হাসু মিয়া (২২) নামে দুজনের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

মেয়েটির পরিবার সূত্রে জানা গেছে, গত শনিবার দুপুরে বাড়ির পাশে পুকুরে গোসল করছিল সে। এ সময় একই গ্রামের কাওছার ও হাসু মিয়া তাকে বাড়ি নিয়ে যাওয়ার কথা বলে ভ্যানে তুলে নেয়।

এরপর মাঠের মধ্যে নিয়ে গিয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে জোরপূর্বক দু’জন মিলে ধর্ষণের চেষ্টা করে। লোকলজ্জা ও ভয়ে মেয়েটি প্রথমে এ ঘটনা তার পরিবারকে জানায়নি। কিন্তু পরে সে তার মা’র কাছে ঘটনাটি প্রকাশ করে।

মেয়েটির বাবা বলেন, কাওছারের বাবা এ ঘটনায় মামলা না করতে বিভিন্ন ভাবে হুমকি দিচ্ছেন এবং মিমাংশার কথাও বলছেন। এরপরেও বিচারের দাবিতে তিনি থানায় অভিযোগ করেছেন।

বুধবার (২৪ এপ্রিল) এ বিষয়ে নন্দীগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ নাসির উদ্দিনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ওই ঘটনায় মেয়ের বাবা বাদী হয়ে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছে। বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

তাছলিমা আজম/নন্দিগ্রাম