আটক ধর্ষক

বগুড়ার নন্দীগ্রামে তৃতীয় শ্রেণির এক ছাত্রীকে মিষ্টি খাওয়ানোর কথা বলে ধর্ষণ করেছে মাদরাসার দপ্তরী। ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত দপ্তরী আলমগীর হোসেন বাবলু (৪৫) কে গণধোলাই দিয়ে পুলিশের নিকট সোর্পদ করেছে স্থানীয়রা।

শনিবার দুপুরে উপজেলার থালতা মাজগ্রাম ইউনিয়নের মাজগ্রামে এ ঘটনা ঘটে। গ্রেফতারকৃত আলমগীর হোসেন বাবলু মাজগ্রাম এমএ সিনিয়র ফাজিল মাদরাসার দপ্তরী।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শনিবার দুপুরে মাজগ্রাম এমএ সিনিয়র ফাজিল মাদরাসার তৃতীয় শ্রেনীর এক ছাত্রী বাবলুর বাড়ির পাশ দিয়ে মাদরাসায় যাচ্ছিল। এ সময় বাবলু তাকে মিষ্টি খাওয়ার কথা বলে বাড়ি ভিতর ডেকে নিয়ে যায়। এরপর শয়ন ঘরের ভিতরে নিয়ে গিয়ে জোরপূর্বক তাকে ধর্ষণ করে বাড়িতেই আটকে রাখে।

এসময় শিশুটির চিৎকার করলে স্থানীয়রা এসে তাকে উদ্ধার করে। পরে ধর্ষনের ঘটনা জানার পর বাবলুকে আটক করে গনধোলাই দেয় স্থানীয়রা। এরপর পুলিশ খবর পেয়ে বাবলুকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে নন্দীগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শওকত কবিরের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, শিশু ধর্ষণকারীর বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

তাছলিমা আজম/নন্দীগ্রাম