৫ দিনের প্রবল বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার পাঁচটি ইউনিয়নের ৪০টি গ্রামের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। এতে পানিবন্দি হয়ে পড়েছে প্রায় ১০ হাজার পরিবার।

কাঁচা ঘরবাড়ি, রাস্তাঘাট, রোপা আমন ধানের বীজতলা, সবজি ও শতাধিক পুকুরের মাছ পানিতে ভেসে গেছে।

প্রবল বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে ঝিনাইগাতী সদর, ধানশাইল, মালিঝিকান্দা, হাতিবান্দা ও গৌরীপুর ইউনিয়নের ৪০টি গ্রামের প্রায় ১০ হাজার পরিবার পানিবন্দি হয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছে। বিশেষ করে গৃহপালিত পশু নিয়ে চরম বিপাকে পড়েছেন গৃহস্থরা।

বাড়িতে পানি ওঠায় চুলা জ্বালাতে পারছেন না প্লাবিত এলাকার মানুষজন। শুকনো খাবার খেয়েই দিন পার করছেন তারা। বৃষ্টিপাত না কমলে পানিবন্দি মানুষের দুর্ভোগ আরও চরমে পৌঁছবে বলে জানা গেছে। ঝিনাইগাতি উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রুবেল মাহমুদ জানান, বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকায় পরিস্থিতির আরও অবনতি হতে পারে। তবে যেকোনো দুর্যোগপূর্ণ পরিস্থিতি মোকাবেলায় প্রস্তুতি রয়েছে।

আজকের পাত্রিকা/আরকে