৬ই সেপ্টেম্বর ২০১৯ শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় সাহিত্যের বাচি চর্চা ও প্রসার প্রতিষ্ঠান কণ্ঠশীলনের আয়োজনে কাজী নজরুল ইসলামের নির্বাচিত কবিতার আবৃত্তি অনুষ্ঠান ‘স্বগত সংলাপ’ মঞ্চস্থ হলো শওকত ওসমান স্মৃতি মিলনায়তন, কেন্দ্রীয় পাবলিক লাইব্রেরি, শাহবাগ ঢাকায়।

কণ্ঠশীলনের প্রধান পরিচয় ‘শুদ্ধ উচ্চারণ ও আবৃত্তি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান’ হলেও বর্তমানে আবৃত্তি ও মঞ্চনাটক প্রযোজনার একটি বড় সংগঠন হিসেবে তার আসন দৃঢ় করেছে। কণ্ঠশীলনের মূল লক্ষ্য বাংলা সাহিত্যকে এই দেশের মানুষের কাছে নিয়ে যাওয়া এবং শিক্ষিত সকল মানুষকে একক মান মৌখিক ভাষায় নিয়ে আসা। দলীয় আবৃত্তিচর্চাকে প্রাধান্য দিলেও কণ্ঠশীলন একক আবৃত্তিশিল্পী তৈরির দিকেও সমান মনোযোগী। কণ্ঠশীলনের নিয়মিত আবৃত্তিশিল্পীদের আয়োজন ‘স্বগত সংলাপ’ শীর্ষক নির্বাচিত কবিতার আবৃত্তি অনুষ্ঠান একক আবৃত্তিশিল্পী তৈরিতে ভ‚মিকা রাখে। কাজী নজরুল ইসলামের প্রয়াণ দিবস উপলক্ষে শ্রদ্ধা নিবেদন করে এবারের ‘স্বগত সংলাপ’ কাজী নজরুল ইসলামের ও তাঁকে নিবেদিত কবিতা দিয়ে সাজানো হয়েছে । ‘স্বগত সংলাপ’-এর এই পর্বে ১৩ জন আবৃত্তিশিল্পী একক আবৃত্তি পরিবেশন করেন। অনুষ্ঠানটির প্রণোদনায় ছিলেন রইস উল ইসলাম ও ইলা রহমান।

কাজী নজরুল ইসলামের নির্বাচিত কবিতা, প্রবন্ধ, অভিভাষণ ও তাঁকে নিবেদিত কবিতা দিয়ে সাজানো আয়োজনটি ছিল অত্যন্ত পরিপাটি। কণ্ঠশীলন সভাপতি গোলাম সারোয়ারের স্বাগত বক্তব্যের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সূচনা হয়। আবৃত্তির মাধ্যমে নজরুলের প্রেম, দ্রোহ, উল্লাস,প্রতিবাদ সর্বোপরি তাঁর জীবনবোধ, জন্ম-মৃত্যু, বেঁচে থাকার যাবতীয় আলাপকে তুলে ধরেন কণ্ঠশীলনের আবৃত্তিশিল্পীরা। ‘অভিশাপ’ আবৃত্তি করেন বাদল সাহা শোভন; এরপর কাজী নজরুল ইসলামকে নিবেদিত অচিন্ত্য কুমার সেনগুপ্তের ‘কাজী নজরুল ইসলাম’ আবৃত্তি করেন মোস্তফা কামাল; এরপর আবৃত্তি করেন আফরিন খান ‘সন্ধ্যা-তারা’;

মিনহাজুল বশির শোভন ‘কুলি-মজুর’; নুরুজ্জামান নান্নু ‘রুদ্রমঙ্গল’; সোহেল রানা ‘কান্ডারি হুশিয়ার’; রাজিয়া সুলতানা মুক্তা ‘কবি রানী’; আহমাদুল হাসান হাসনু ‘গেছে দেশ দুঃখ নাই, আবার তোরা মানুষ হ’; অনন্যা গোস্বামী ‘আগমনী’; সালাম খোকন ‘যদি
আর বাঁশি না বাজে’; ইলা রহমান ‘গানের আড়াল’; একেএম শহীদুল্লাহ কায়সার ‘আমার কৈফিয়ত’ এবং রুবেল মজুমদার ও মিনহাজুল বশির শোভন আবৃত্তি করেন ‘হিন্দু-মুসলিম’। কবিতাকে নিজের মধ্যে নিয়ে শিল্পীরা যেভাবে আবৃত্তি করলেন তা দর্শক হৃদয়ে আলোড়ন সৃষ্টি করে। মনে এক ভালো লাগার পরশ নিয়ে ফিরলেন কবিতাপ্রেমী শ্রোতা।