ধর্ষণ। প্রতীকী ছবি

ঢাকার ধামরাইয়ে পরকীয়ায় ফেসে গেলেন এক প্রবাসীর স্ত্রী। নিজের পরকীয়া প্রেমিকসহ সহযোগীদের হাতে গণধর্ষণের স্বীকার হয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী প্রবাসীর ওই স্ত্রী।

শুক্রবার (১৩ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ধামরাই থানার পুলিশ পরিদর্শক দীপক চন্দ্র সাহা। এঘটনায় বৃহস্পতিবার (১২সেপ্টেম্বর) রাতে ধামরাই থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী নারী।

এর আগে চাকুরী খোজার সুবাদে জসিম (২৫) নামে এক যুবকের সাথে পরিচয় হওয়ার পর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে ভুক্তভোগী নারীর। পরে গত ৯ই সেপ্টেম্বর ওই নারীকে চাকরি সংক্রান্ত ব্যাপারে কথা বলার জন্য জসিম তার বাথুলি এলাকার ভাড়া বাসায় ডাকলে সন্ধ্যায় তার বাসায় যান ভুক্তভোগী।

এসময় একাকিত্বের সুযোগ নিয়ে প্রথমে জসিম পরে আরও তিন থেকে চার জন পালাক্রমে ধর্ষণ করে বলে মামলার এজাহার থেকে জানা যায়। এসময় তার ডাক চিৎকার শুনে এলাকাবাসীরা এগিয়ে আসলে তারা পালিয়ে যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসা শেষে বৃহস্পতিবার (১২সেপ্টেম্বর) রাতে ধামরাই থানায় জসিম ও নাহিদের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরো ২/৩ জনকে আসামী করে মামলা করেন ভুক্তভোগী।

এব্যপারে ধামরাই পুলিশ পরিদর্শক (ওসি) দীপক চন্দ্র সাহা বলেন, এঘটনায় ভুক্তভোগী নারী বাদি হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন, আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

মাহিদুল মাহিদ/সাভার/ঢাকা