ধর্ষণের এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন অ্যাসাঞ্জ। ছবি: রয়টার্স

উইকিলিকসের প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগের তদন্তকারী সুইডিশ প্রসিকিউটররা ২০ মে সোমবার অ্যাসাঞ্জের বিরুদ্ধে আটকের আদেশ দিতে স্থানীয় আদালতের কাছে অনুরোধ জানিয়েছেন। বার্তা সংস্থা রয়টার্স এই তথ্য নিশ্চিত করেছে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, প্রসিকিউটরদের এই অনুরোধ গৃহীত হলে তা অ্যাসাঞ্জকে ব্রিটেন থেকে সুইডেনের কাছে হস্তান্তর প্রক্রিয়ার প্রথম পদক্ষেপ হতে পারে।

সুইডেন গত সপ্তাহে ওই ধর্ষণ অভিযোগের তদন্ত আবার শুরু করে। ২০১০ সালে প্রথম এই অভিযোগটি আনা হয়েছিল। কিন্তু অ্যাসাঞ্জ লন্ডনের একুয়েডর দূতাবাসে আশ্রয় নিলে মামলা এগিয়ে নেওয়া সম্ভব না মনে করে ২০১৭ সালে সুইডেন মামলাটি খারিজ করেছিল।

অ্যাসাঞ্জ এখন ব্রিটেনের কারাগারে আছেন। সেখানে জামিনের শর্ত ভঙ্গের দায়ে ৩৫০ দিনের কারাবাসের দণ্ড ভোগ করছেন তিনি।

২০ মে সোমবার গণমাধ্যমে এক বিবৃতিতে সহকারী প্রধান প্রসিকিউটর এভা-মারি পারসন বলেছেন, ‘সম্ভাব্য ধর্ষণ ঘটনার সন্দেহভাজন হিসেবে অ্যাসাঞ্জকে তার অনুপস্থিতিতে আটকাদেশ দিতে ডিস্ট্রিক্ট কোর্টের কাছে আবেদন জানিয়েছি আমি।’

এছাড়াও গণমাধ্যমে পারসন জানিয়েছেন, ‘আদালত অ্যাসাঞ্জের বিরুদ্ধে আটকাদেশ দিলে তিনি অ্যাসাঞ্জকে সুইডেনের কাছে আত্মসমর্পন করানোর জন্য ইউরোপীয় গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করবেন।‘

তবে ধর্ষণের এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন অ্যাসাঞ্জ। সাত বছর একুয়েডর দূতাবাসে থাকার পর ৪৭ বছর বয়সী অ্যাসাঞ্জকে এপ্রিল মাসে দূতাবাস থেকে লন্ডন পুলিশ গ্রেফতার করেছে।

আজকের পত্রিকা/বিএফকে/এমএইচএস