প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা’র কার্যালয়ের আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের অধীনে যার জমি আছে ঘর নাই তার নিজ জমিতে গৃহ নির্মাণ’ প্রকল্পের ২০১৮-১৯ অর্থ বছরে নওগাঁ সদর উপজেলায় ১৭৮ টি গৃহ নির্মাণের বরাদ্দ হয়েছে।

এতে প্রকল্পের মোট ব্যায় ১ কোটি ৭৮ লক্ষ টাকা। এবছরে উপজেলার ১২টি ইউনিয়সহ ১টি পৌরসভায় ১৭৮ জন উপকারভোগী আশ্রয়ণের অধিকার শেখ হাসিনার উপহার পেয়েছেন।

উপকারভোগীরা জানান, আমাদের জমি আছে কিন্তু ঘর না থাকায় শেখ হাসিনা কার্যালয়ের বরাদ্দ থেকে ঘর পাওয়ায় আমরা অনেক খুশি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র জন্য আমরা আজ মাথা গুঁজার ঠাই পেয়েছি। এজন্য আমরা প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাই।

নওগাঁ সদর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) মাহবুবুর রহমান বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র কার্যালয়ের আশ্রয়ণ-২, প্রকল্পের অধীনে যার জমি আছে ঘর নাই তার নিজ জমিতে গৃহ নির্মাণ’ প্রকল্পের ২০১৮-১৯ অর্থ বছরে যারা ঘর পাওয়ার উপযুক্ত তাদেরকেই গৃহ নির্মাণ করে দেওয়া হয়েছে।

আরও যারা ঘর পাওয়ার উপযুক্ত তারা পর্যায়ক্রমে ঘর পাবেন।

নওগাঁ সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, ‘জমি আছে ঘর নাই’ প্রকল্পের আওতায় গৃহহীনদের বাড়ি দেয়া হচ্ছে যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অভিনব ও চমৎকার উদ্যোগ।

বাড়িগুলো পেয়ে হতদরিদ্ররা এতো খুশি হয়েছেন যে আমার সামনে তারা হাত তুলে প্রধানমন্ত্রীর জন্য দোয়া করেছেন।

তিনি আরোও বলেন, আমরা সফলভাবে বাড়িগুলো তৈরি করতে পেরেছি। এতে করে গ্রামের পিছিয়ে পড়া মানুষের জীবনমানের উন্নয়ন ও জীবনযাত্রার পরিবর্তন হবে। ব্যাপক চাহিদা থাকায় এ ধরনের বাড়ি নির্মাণের ধারা আগামীতেও অব্যাহত থাকবে।

-মাহবুবুজ্জামান সেতু