রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া যৌনপল্লীর দুই হাজার পরিবারের মাঝে কোরবানীর মাংস বিতরণ করা হয়েছে।

শনিবার (১ আগষ্ট) বিকেলে গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের জলিল ফকিরের বাড়িতে ‘উত্তরণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে’ পুলিশের ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি হাবিবুর রহমানের ব্যবস্থাপনায় দৌলতদিয়ার যৌনকর্মীদের মাঝে দুই হাজার কেজি মাংস বিতরণ করা হয়।

মাংস বিতরণ অনুষ্ঠানে রাজবাড়ী পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান, গোয়ালন্দ ঘাট থানার অফিসার ইনাচার্জ (ওসি) মো. আশিকুর রহমান, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আবদুল্লাহ আল তায়াবীর, অসহায় নারী ঐক্য সংগঠনের সভানেত্রী ঝুমুর বেগম উপস্থিত ছিলেন।

ঈদের দিনে মাংস পেয়ে যৌনকর্মীরা বলেন, দীর্ঘদিনের প্রতিষ্ঠিত দৌলতদিয়া যৌনকর্মীরা কোনদিন কারো থেকে কোরবানীর মাংস পায়নি।মৃত্যুর পর জানাযা নামাজের মধ্য দিয়ে অবহেলিত এসব যৌনকর্মীদের প্রতি পুলিশের ভালাবাসার যে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে সেটা এই পল্লীর বাসিন্দারা সারা জীবন মনে রাখবে। করোনাভাইরাস ও বন্যার ভয়াবহতার মধ্যে যখন এই পল্লীর বাসিন্দারা অসহায় তখন ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি হাবিবুর রহমান মাংস বিতরণ করে পল্লীর অনেক পরিবারের মুখে হাসি ফুটিয়েছেন।

রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান (পিপিএম) বলেন, উত্তরণ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ও পুলিশের ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি হাবিবুর রহমান দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে বসবাসরত দুই হাজার পরিবারের মাঝে এক কেজি করে মাংস উপহার দিয়েছেন।

  • 4
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    4
    Shares