দেশের সমৃদ্ধ জ্বালানি সেক্টর গড়তে কাজ করছে জেএইচএম গ্রুপ। এ লক্ষ্যে ইন্দোনেশিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে পরিবেশ সমৃদ্ধ জ্বালানি কয়লা আমদানি করছে সংস্থাটি। ইতিমধ্যে কয়েক মিলিয়ন টন কয়লা আমদানি করেছে জেএইচএম গ্রুপ।

দেশের চট্টগ্রাম সমুদ্র বন্দর দিয়ে আমদানি করা এসব কয়লা বিভিন্ন বিভাগীয় বন্দরে রাখা হয়েছে। জ্বালানির অভাবে যাতে কোন শিল্প কারখানা বা প্রতিষ্ঠানের উৎপাদন বন্ধ না হয়ে সে চেষ্টা চালিয়ে যাবে জেএইচএম গ্রুপ।

সম্প্রতি গুলশানে জেএইচএম গ্রুপের প্রধান কার্যালয়ে গ্রুপ চেয়ারম্যান মেহেদী হাসান এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন জেএইচএম গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. জাহাঙ্গীর আলম, পরিচালক মো. হুমায়ুন কবির, ডিএমডি মেহেদী হাসান বিপ্লব ও মার্কেটিং ডিরেক্টর মো. ইসমাইল হোসেন।

জেএইচএম গ্রুপের চেয়ারম্যান মেহেদী হাসান বলেন, সরকারের অর্থনৈতিক উন্নয়নে জ্বালানি খাতে টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিত করাই জেএইচএম গ্রুপের লক্ষ্য। আর এ লক্ষ্য পূরণে প্রাথমিকভাবে জ্বালানির টেকসই সরবরাহ নিশ্চিত করা এবং আমদানিকৃত জ্বালানি দেশের বিভিন্ন বন্দর থেকে সুষম বন্ঠনও করা হচ্ছে।

ডিএমডি মেহেদী হাসান বিপ্লব বলেন, সরকারের ভিশন ২০২১ সালের মধ্যে মধ্য আয়ের এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত অর্থনীতির দেশ হিসেবে গড়ে তুলতে জেএইচএম গ্রুপ জ্বালানি সেক্টরে তাদের কর্মতৎপরতা অব্যাহত রেখেছে।

জেএইচএম গ্রুপ থাকতে বাংলাদেশে জ্বালানির কোন অভাব হবে না। আমরা কয়লা আমদানি অব্যাহত রেখেছি। যাতে কোন শিল্প কারখানা বা প্রতিষ্ঠানের উৎপাদন বন্ধ হয়ে না যায়।

মার্কেটিং ডিরেক্টর মো. ইসমাইল হোসেন বলেন, আমদানিকৃত ইন্দোনেশিয়ার কয়লা পাওয়া যাবে গাবতলি, ভৈরব, কাঞ্চন, দাউদকান্দি, নোয়াপাড়া ও পাগলা এলাকায়।