অপো এফ১১ প্রো। ছবি: সংগৃহীত

দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান ঘটিয়ে বাংলাদেশের বাজারে এফ১১ প্রো নিয়ে আসার অল্প ক’দিনের মধ্যেই এ স্মার্টফোনে থাকা ‘ব্রিলিয়ান্ট লো লাইট পোর্ট্রেট’ ফিচার ও ‘আলট্রা-হাই স্ট্যান্ডার্ড’ ৪৮+৫ মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরা সিস্টেমের কল্যাণে ‘পোর্ট্রেইট এক্সপার্ট’- এর তকমা পেলো বিশ্বসেরা স্মার্টফোন নির্মাতা ব্র্যান্ড ‘অপো’।

নিজেদের ইতোমধ্যেই অতুলনীয় ‘সেলফি এক্সপার্ট’ হিসেবে প্রতিষ্ঠা করার পর ব্র্যান্ডটি বর্তমানে নিজেদের উদ্ভাবনী সক্ষমতা বৃদ্ধিতেই নজর দিয়েছে স্মার্টফোনে ‘পোর্ট্রেট ফটোগ্রাফিতে’। সর্বাধুনিক উদ্ভাবনী ক্যামেরা প্রযুক্তি সমৃদ্ধ এ মডেলটিতে থাকা ‘লো লাইট পোর্ট্রেইট ফটোগ্রাফি মোড’- এ স্বল্প আলোতেও স্মার্টফোনটি নিখুঁত ছবি ধারণে সক্ষম। আর এটি সম্ভব হয়েছে ফোনটিতে থাকা ‘আলট্রা ক্লিয়ার ইঞ্জিন’- এর সাহায্যে অল্প আলোতেও ছবিতে স্কিন-টোন বাড়িয়ে দেবার মাধ্যমে।

বাংলাদেশের বাজার নিয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে অপো বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডেমন ইয়াং বলেন, ‘স্মার্টফোনের লেন্সে জীবনের আনন্দ তুলে ধরতে পছন্দ করে, বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে থাকা এমন তরুণদের মনের শৈল্পিক দিকটিকেই প্রাধান্য দেয় অপো। অপো নিয়ে এমন একটি ধারণা প্রতিষ্ঠা করতে সক্ষম হয়েছি আমরা। এটি একদিক থেকে যেমন গর্বের তেমনি চ্যালেঞ্জেরও কেননা, ক্যামেরা ফিচারের প্রশ্নে তরুণদের দ্রুত পরিবর্তনশীল চাহিদা পূরণ করা সহজ নয়। বিশ্বজুড়ে এমনকি বাংলাদেশেও আমাদের আগের পণ্যগুলোকে ঘিরে বাজারে যে আগ্রহ ও উদ্দীপনার সৃষ্টি হয়েছে, নতুন কিছু উদ্ভাবনে সেটিই আমাদের প্রতিনিয়ত উৎসাহ জুগিয়েছে।’

বড় ইমেজ সেন্সর, প্রশস্ত অ্যাপারচার আর কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার সক্ষমতার সমন্বয়ে ঝকঝকে হাই রেজ্যুলেশনে ছবি তুলতে সক্ষম অপো এফ১১ প্রো। স্বল্প আলোয় ‘ব্রিলিয়ান্ট পোর্ট্রেট’ ফটোগ্রাফির সুবিধা ছাড়াও নিখুঁত সেলফি ধারণে ফ্রন্ট ক্যামেরায় স্থাপন করা হয়েছে রাইজিং ক্যামেরা প্ল্যাটফর্ম। নচবিহীন এ ফোনটিতে রয়েছে দুর্দান্ত প্যানারোমিক ফুলস্ক্রিন।

অপো এফ১১ প্রো স্মার্টফোনটিতে রয়েছে ৪০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি ও ৬ গিগাবাইট র্যা ম। থান্ডার ব্ল্যাক ও অরোরা গ্রিন এ দু’টি কালার ভ্যারিয়েশনে ৩৬,৯৯০ টাকায় এই ফোনটি পাওয়া যাবে সারাদেশের অপো আউটলেটগুলোতে।

আজকের পত্রিকা/এমআরএস