প্রতীকি ছবি

ফেনীর দাগনভূঞা উপজেলায় রাতে দেরি করে বাড়ি ফেরায় স্বামীকে কুপিয়ে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে এক নারীর বিরুদ্ধে। ২১ অক্টোবর দুপুরে কাজল বেগম (৩০) নামে ওই নারীর বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেন স্বামী ছালাউদ্দিন মিস্টার (৪২)।

জানা যায়, গত ১১ অক্টোবর রাত ৯টার দিকে ছালাউদ্দিন নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র নিয়ে বাড়িতে ঢুকে স্ত্রীকে ঘরের দরজা খুলতে বলেন। সে সময় তার মেয়ে দরজা খুলে দেয়। ঘরে ঢোকার পর দেরি করে বাড়ি ফেরা নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া শুরু হয়। এরই এক পর্যায়ে কাজল বটি দিয়ে ছালাউদ্দিনকে মুখে ও ঘাড়ে এলোপাথাড়ি কোপাতে শুরু করেন। এ সময় ধস্তাধস্তিতে ছালাউদ্দিনের বেশ কয়েকটি দাঁতও ভেঙে যায়। পরে ছালাউদ্দিনের চিৎকারে বাড়ির অন্য লোকেরা এগিয়ে গিয়ে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখান থেকে চিকিৎসক তাকে ফেনী জেনারেল হাসপাতালে পাঠান। পরবর্তীতে অবস্থার অবনতি ঘটলে তাকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। ছালাউদ্দিনের বর্তমান অবস্থা খুব একটা ভালো নয় বলে জানান তার ভাই আনোয়ার হোসেন।

দাগনভূঞা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আসলাম সিকদার ঘটনার ব্যাপারে নিশ্চিত করে বলেন, মামলা দায়ের হয়েছে। পুলিশ এখন ওই গৃহবধুকে গ্রেফতারের চেষ্টা করছে।