টেলিভিশনের গুণী নির্মাতা মেজবাউর রহমান সুমন তার প্রথম চলচ্চিত্র নির্মাণের কাজ শুরু করেছেন তা এখন সবারই জানা। ‘হাওয়া’ নামের এই সিনেমার শুটিংয়ের কাজ পুরোদমেই চলছে। সিনেমাটিতে কাজ করছেন জনপ্রিয় অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী। সম্প্রতি এই অভিনেতা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজের অ্যাকাউন্ট থেকে একটি ছবি পোস্ট করেছেন, যেখানে নির্মাতা মেজবাউর রহমান সুমন, সিনেমাটোগ্রাফার কামরুল হাসান খসরু এবং খোদ চঞ্চলকেও দেখা যায়।

নিজের দেওয়া ওই পোস্টে সেন্ট মার্টিন দ্বীপে এবং মধ্য সাগরে ‘হাওয়া’ সিনেমার শুটিং চলছে জানিয়ে এই সিনেমার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। পাঠকদের জন্য চঞ্চলের পোস্টটি তুলে দেওয়া হলো-

“আমার নতুন সিনেমা ‘হাওয়া’
সুমনের স্বপ্ন
……………..
পুরো নাম: মেজবাউর রহমান সুমন
দেখতে কৃষ্ণ বর্ণের তামিল নায়ক মনে হলেও, আসলে সে আপাদমস্তক একজন নির্মাতা। বিজ্ঞাপন এবং নাট্যনির্মাতা হিসেবে দেশের সেরাদের একজন। ভালো ছেলে, ভদ্রছেলে। আমার মতোই চারুকলায় পড়ালেখা করেছে, সে আমার খুব কাছের ছোট ভাই। ‘হাওয়া’ তার প্রথম স্বপ্ন, প্রথম সিনেমা নির্মান। দারুণ গল্প। কঠিন নির্মানের জন্য সে আমাদেরকে চূড়ান্ত কষ্ট দেবার উদ্দেশ্যে সেন্ট মার্টিন মধ্য সমুদ্রে নিয়ে এসেছে। তার স্বপ্ন সফল হোক। সুমন সকলের দোয়াপ্রার্থী।

খসরু
পুরো নাম: কামরুল হাসান খসরু।
অমায়িক ছেলে, দুর্দান্ত ছেলে, ভদ্র যুবক। এর আগে ‘মনপুরা’ এবং ‘দেবী’ সিনেমায় ক্যামেরা চালিয়ে ফাটিয়ে দিয়েছেন।ক্যামেরার বডি আর তার বডি আলাদা করা কঠিন, মিলেমিশে একাকার। তার ক্যামেরার প্রত্যেকটা ফ্রেম এক একটা জীবন্ত ছবি। ফণা তুলে আছেন ‘হাওয়া’ সিনেমায় ক্যামেরা হাতে। এতটা প্রানশক্তি দেখে সৃষ্টিকর্তাও খুশী হবেন।

চঞ্চল চৌধুরী:
‘আপনারে বড় বলে, বড় সেই নয়, লোকে যারে বড় বলে, বড় সেই হয়’

আমি নিমিত্ত মাত্র। দর্শকের জন্য ভালো কিছু করার চেষ্টা করি। নতুন গল্প, নতুন চরিত্র পেলে সব ভুলে যাই। যুদ্ধ করি ভালো কাজের জন্য, অস্তিত্ব ধরে রাখবার জন্য।
……………………………………..
আমি ছাড়া আরও যারা ‘হাওয়া’ সিনেমার জন্য এই মধ্য সাগরে জীবন বাজী রেখেছেন, তারা হলেন- সুমন আনোয়ার, শরিফুল রাজ, নাসির, বাবলু বোস, রিজভী, সোহেল, মাহমুদ এবং নাফিসা টুসিসহ ইউনিটের প্রায় ২০০জন মানুষ। প্রিয় দর্শক, আমরা হাসিমুখে অনেক কষ্ট করতে পারি শুধু আপনাদের জন্য। দূর্বার গতিতে এই মধ্য সাগরে চলছে ‘হাওয়া’ সিনেমার শ্যুটিং।
…………………….
‘হাওয়া’র জয় হোক…..
বাংলা সিনেমার জয় হোক….”

আজকের পত্রিকা/সিফাত