বাচ্চা যত বড় হতে থাকে, পাল্লা দিয়ে বাড়ে তাদের দুষ্টুমি। ছবি: সংগৃহীত

শিশু যখন নিতান্তই ছোট, তখন তাদের দুষ্টুমি, মজাদার কাণ্ডকারখানাগুলো দেখে আমরাও ফিরে যাই নিজেদের ছোটবেলায়। কিন্তু বছর দুয়েক পেরোতে না পেরোতেই ছোট্ট দস্যির দুরন্তপনায় ধৈর্য্য হারান অনেক বাবা-মা। বাচ্চা যত বড় হতে থাকে, পাল্লা দিয়ে বাড়ে তাদের দুষ্টুমিও। তবে খেয়াল রাখুন তা যেন মাত্রাতিরিক্ত না হয়। ঠিক সময়ে হাল না ধরলে, পরবর্তীকালে এটাই অনেক বড় সমস্যা হয়ে দেখা দেয়। শাসন করতে হবে, কিন্তু কখনো মারধোর করা ঠিক নয়। দুষ্টু বাচ্চাকে বোঝান ধৈর্য্য ধরে, আদরের সঙ্গে। বাচ্চাদের দুষ্টুমি নিয়ন্ত্রণে আনার জন্যে রইল কিছু টিপস জেনে নিতে পারেন-

মাথা ঠান্ডা রাখুন

প্রথমত আপনি নিজের মাথা ঠান্ডা রাখুন। বাচ্চারা যখন জেদ করে, তখন জিনিসপত্র ছোঁড়াছুড়ি থেকে শুরু করে নিজেকে নিজে ব্যথা দেওয়া কিংবা শ্বাস আটকে রাখার মতো ভয়াবহ কাজও করতে পারে। এগুলি করা তাদের জন্য খুবই স্বাভাবিক। তারা একবার জেদ করা শুরু করলে আপনার কোনো কথা শুনবে তো নাই-ই, বরং আপনি যা বলবেন তার উল্টোটাও করতে পারে। এমন অবস্থায় চুপচাপ তার পাশে বসে থাকাটাই সবচেয়ে বুদ্ধিমানের কাজ। পরিস্থতি বেশি খারাপ হলে তাকে বকাবকি করে কিংবা তাকে ফেলে রেখে ঘর থেকে বের হয়ে না গিয়ে বরং আগলে ধরে বসে থাকুন।

সিদ্ধান্তে স্থির থাকুন

নিজের সিদ্ধান্ততে অটল থাকুন। বাচ্চারা যত জেদই করুক না কেন, কখনই তাদের অন্যায় আবদার শুনবেন না অথবা চিৎকার করে বকবেন না। যদি আপনি একবার বাচ্চার অন্যায় আবদার শুনেন, তাহলে সে মনে করবে সবকিছু পাওয়ার জন্য চিৎকার করা বা জিনিসপত্র ভেঙে ফেলা স্বাভাবিক। বাচ্চারা সাধারণত প্রচুর মানুষ দেখলে বেশি জেদ করে। এরকম পরিস্থিতির শিকার হলে তাকে নিয়ে ওই জায়গা থেকে সরে আসুন। এবং যতক্ষণ সে না থামে, তার সাথে থাকুন।

কথা দিয়ে বোঝানো

আপনার বাচ্চা খুব জেদ করলে বা কান্নাকাটি করলে তাকে আগে শান্ত হওয়ার সময় দিন। তারপর তার সাথে এ ব্যাপারে কথা বলুন- কেন সে চিৎকার চেঁচামিচি করেছিল বা ভাংচুর করেছিল। তাকে কথার মাধ্যমে বুঝান যে, কান্নাকাটি করলেই কিছু পাওয়া যায় না।

ভালো কাজের মূল্যায়ন করুন

তাকে সবসময় অনুভব করান, আপনি তাকে ভালবাসেন। যখনি তাকে কোনো কাজের জন্য শাস্তি দিবেন বা বকা দিবেন, তারপর কখনই আদর করতে ভুলবেন না। সে যদি ভালো কোনো কাজ করে, তাহলে তাকে ছোটখাট পুরষ্কার দিন।

তাকে ব্যস্ত রাখুন

লক্ষ্য রাখুন কী ঘটলে আপনার শিশু বেশি জেদ করে। যদি আপনি দেখেন তার খিদে পেলে সে কান্নাকাটি করছে, তাহলে খাবার সবসময় রেডি রাখুন। অথবা যদি মনে হয়, তার কাছ থেকে কিছু সরিয়ে নিলে, সে জেদ করছে তাহলে সঙ্গে সঙ্গে অন্য কিছু দিয়ে ভুলিয়ে ফেলার চেষ্টা করেন। তাকে কান্নাকাটি করার সুযোগেই দেবেন না। সঙ্গে সঙ্গে অন্য কিছুতে তাকে ব্যস্ত করে ফেলবেন। আপনার বাচ্চা বড় হচ্ছে, তাই যতটা পারেন তাকে নিজের পছন্দ অনুযায়ী থাকার সুযোগ দিন।

আজকের পত্রিকা/কেএইচআর/সিফাত