চরফ্যাশন উপজেলার দক্ষিণ আইচা থানার চরমানিকার কোস্টগার্ড দু‘মাসে সরকারের নির্দেশনায় প্রায় ১৮ কোটি টাকার কারেন্ট জাল পুড়িয়েছে। ২৩ জেলে আটক করা হয়েছে। জাটকা ধরার ট্রলার ১৩টি জব্দ করা হয়েছে।

দক্ষিণ আইচা কোস্টগার্ড অফিসের তথ্যমতে জানা যায়, গত ২৫ নভেম্বর/১৯ থেকে ১৭ জানুয়ারী/২০ তারিখ পর্যন্ত প্রায় দু‘মাস মেঘনা তেতুলিয়া নদীতে বিভিন্ন স্পটে অভিযান পারিচালনা করা হয়।

এতে অবৈধ কারেন্ট জাল ৪৪লাখ ৫হাজার মিটার, যার মূল্য ১৫ কোটি ৪১লাখ ৭৫হাজার টাকা। চরঘেরা জাল ৩লাখ ৬০হাজার মিটার, মূল্য ১ কোটি ২৬লাখ টাকা।

বেহুন্দি জাল ১০১ পিচ মূল্য ৫০লাখ ৫০হাজার টাকা। ১৮হাজার ৪১০ কেজি জাটকা ইলিশ মূল্য ৬৪লাখ ৪৩হাজার ৫শ টাকা‘।

উপজেলা নির্বহী কর্মকর্তা রুহুল আমীন, সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মারুফ হোসেন মিনার, সংবাদকর্মী ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের উপস্থিথিতে উপজেলার বিভিন্ন এতিম খানায় ও গরীবদের মাঝে বিতরণ করা হয়।

জেলে আটক ২৩জন ও জাটকা নিধন নৌকা ১৩টি জব্দ করা হয়।

দক্ষিণ আইচার চরমানিকার কোস্টগার্ড কন্টিনজেন্ট কমান্ডার মো. আমলগীর হোসেন বলেন, আমরা নদীতে জাটকা ধরার প্রধান উৎস্য কারেন্ট জাল ও মাছ-নৌকা জব্দ করে থাকি। মৎস্য আইনের বিধাম মতে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

এই অভিযানের ফলে আমরা সাফল্য হতে চলছি। নদীতে আর পূর্বের ন্যয় জাল দেখা যায়না। মৎস্য রপ্তানীর সড়ক ও নৌ পরিবহনে জাটকা ইলিশের জুড়ি পাওয়া যায়না। আমাদের অভিযান সরকারী নির্দেশ মোতাবেক আগামী ৩০ জুন/২০২০ পর্যন্ত অব্যবহত থাকবে।

-আমির হোসেন