যথাযোগ্য মর্যাদায় আরব আমিরাতের বাণিজ্যিক রাজধানী দুবাইয়ের বাংলাদেশ কনস্যুলেটে ৪৯তম মহান বিজয় দিবস উদযাপন করা হয়েছে।

সোমবার (১৬ ডিসেম্বর) সকাল নয়টায় প্রবাসী বাংলাদেশিদের উপস্থিতিতে দুবাই বাংলাদেশ কনস্যুলেটে কনসাল জেনারেল মুহাম্মদ ইকবাল হোসেন খান জাতীয় পতাকা উত্তোলন করে দিবসের কর্মসূচি উদ্বোধন করেন। এসময় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে ফুল দেওয়া হয়।

অনুষ্ঠানের শুরুতে মহান মুক্তিযুদ্ধে আত্মত্যাগকারী শহীদদের আত্মার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। পরে বিজয়ের তাৎপর্য ও শহীদদের স্মরণে কনস্যুলেটের কনফারেন্স রুমে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

পবিত্র কুরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে আলোচনা সভা শুরু হয়। কনসাল জেনারেল মুহাম্মদ ইকবাল হোসেন খানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় অংশ নেন জনতা ব্যাংক দুবাই ও শারজাহ শাখার ম্যানেজার যথাক্রমে আব্দুল মালিক ও শওকত আকবর ভূইয়া, বাংলাদেশ বিমান দুবাই ও উত্তর আমিরাতের আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক দিলিপ কুমার চৌধুরীসহ কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ।

আলোচনা সভায় অংশ নিয়ে বক্তারা বলেন, ‘ জাতির জনকের স্বপ্নের বাংলাদেশ ও শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ কাজ করতে হবে। দেশ আজ যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে তা অব্যাহত রাখতে আরো শক্ত করে হাল ধরতে হবে।’ এসময় বক্তারা প্রবাসীদের ভোটাধিকার নিশ্চিত করতে সরকারের পরিকল্পনাকে ধন্যবাদ জানান।

মহান বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রতিমন্ত্রী, বাণি পড়ে শোনান হয়। বাণি পড়েন যথাক্রমে ডেপুটি কনসাল জেনারেল শহিদুল ইসলাম , লেবার কাউন্সিল ফাতিমা জাহান, কমার্শিয়াল কাউন্সিল কামরুল ইসলাম এবং প্রথম সচিব পাসপোর্ট ও ভিসা নূর-এ মাহবুবা জয়া।

সবশেষে ‘স্বাধীনতা তুমি, স্বাধীনতা’ শিরোনামে প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়।

এ সময় আমিরাতে অবস্থানরত অনেক প্রবাসী সাংবাদিক, কনস্যুলেটের কর্মকর্তা, আবুধাবি, দুবাই, শারজাহ, ফুজিরাহ, রাস আল-খাইমাহ ও আজমান থেকে আসা বাংলাদেশি কমিউনিটি ব্যক্তিত্বসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

আজকের পত্রিকা/জিয়াউল হক জুমন/ ইউএই প্রতিনিধি