৩ নভেম্বর রবিবার সকালে গণমাধ্যমে চাউর হয় হঠাৎই দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) কার্যালয়ে হাজির হয়েছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। সম্প্রতি আইসিসি কর্তৃক সকল ধরনের ক্রিকেট থেকে নিষেধাজ্ঞা পাওয়া এই ক্রিকেটার কেন দুদক কার্যালয়ে হাজির হয়েছেন, এ নিয়ে জল্পনা কল্পনার শেষ ছিল না। তবে দুদক সূত্রে জানা যায়, পূর্বনির্ধারিত একটি বিষয়ে দুদক চেয়ারম্যান সঙ্গে আলোচনার জন্য এসেছিলেন দুদকের শুভেচ্ছা দূত সাকিব।

রবিবার সকালে সেগুনবাগিচার কার্যালয়ে গিয়ে সাকিব প্রায় ৪৫ মিনিট অবস্থান করেন বলে দুদকের মুখপাত্র প্রনব কুমার ভট্টাচায্য গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন। এ সময় দুদকের পরিচালক নাসিম আনোয়োর প্রধান ফটক থেকে সাকিবকে স্বাগত জানিয়ে তিন তলায় দপ্তরে নিয়ে যান। সেখানে তাকে পিঠা দিয়ে আপ্যায়ন করা হয়। পরে পাঁচতলায় দুদক চেয়ারম্যানের কক্ষে তিনি ৩০ মিনিটের মত অবস্থান করে বেরিয়ে যান।

উল্লেখ্য, সাকিব ২০১৮ সাল থেকে দুদকের শুভেচ্ছা দূত হিসেবে কাজ করছেন। তবে সাকিবের সঙ্গে দুদক চেয়ারম্যানের আলোচনার বিষয়বস্তু বা এ সাক্ষাতের সঙ্গে ক্রিকেটে সাকিবের নিষিদ্ধ হওয়ার কোনো সম্পর্ক আছে কিনা- এ বিষয়ে দুদকের কোনো কর্মকর্তা কথা বলতে চাননি।

আজকের পত্রিকা/সিফাত