সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের মালামাল ক্রয়ের নামে জালিয়াতির মাধ্যমে ১৬ কোটি ৬১ লাখ ৩১ হাজার ৮২৭ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে দুদকের মামলায় সাতক্ষীরার সাবেক সিভিল সার্জন ডা. তৌহিদুল ইসলামের জামিন না’মজ্ঞুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

সোমবার বেলা সাড়ে ১১ টায় সাতক্ষীরা সিনিয়র জজ আদালতে শুনানী শেষে তার জামিন না’মজ্ঞুর করা হয়। বিচারক জেলা ও দায়রা জজ শেখ মফিজুর রহমান তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

সাতক্ষীরা আদালতের সিনিয়র আইনজীবী আব্দুল মজিদ জানান, আসামী তৌহিদুর রহমান হাইকোর্টের আদেশে ছয় সপ্তাহের জামিনে ছিলেন। ৮ সেপ্টেম্বর তাঁর জামিনের মেয়াদ শেষ হয়েছে। জামিন শেষ হওয়ার পর সোমবার স্বেচ্ছায় আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন জানালে আদালত তা না’মজ্ঞুর করে আসামীকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশনা দেন।

আদালতে জামিন শুণানীতে করেন এড. মিজানুর রহমান পিন্টু, এড. শাহ আলম ও এড. তোজাম্মেল হোসেন তোজাম।
অপরদিকে, জামিনের বিরোধিতা করেন রাষ্ট্রপক্ষে দুদকের পিপি এড. আসাদুজ্জামান দিলু। সহযোগিতা করেন এড. ফাহিমুল হক কিসলু, এড. বদিউজ্জামান, এড. শাহিদুজ্জামান, এড. শামিম আহমেদ, এড. সালাউদ্দিনসহ আরও অনেকে।