সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলায় এক প্রবাসীর স্ত্রীর উপর হামলা চালিয়ে দুই কান কেঁটে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

উপজেলার রঘুনাথপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহত ওই গৃহবধু কলারোয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

এ ঘটনায় থানায় তিনজনের নামে থানায় অভিযোগ দিয়েছে তার পরিবার।

আহত গৃহবধু খাদিজা খাতুন (২৭) রঘুনাথপুর গ্রামের মালয়েশিয়া প্রবাসী ফারুক হোসেনের স্ত্রী।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন খাদিজা খাতুন জানান, বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টার দিকে তার শিশু মেয়ে মিম (৫) ও প্রতিবেশি মলি খাতুনের শিশু জিম (৫) এক সঙ্গে খেলা করছিল। এ সময় তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়।

এ ঘটনা নিয়ে তর্কের এক পর্যায়ে আব্দুল মোমিন, মলি খাতুন, কুলছুম বিবি দলবদ্ধ হয়ে লাঠিসোটা নিয়ে বাড়ীতে হামলা চালায়।

আমার ধারালো অস্ত্র দিয়ে আমার দুই কান কেঁটে দেয়। গলায় থাকা একটি স্বর্নের চেন ও দুই কানের দুল ছিনিয়ে নেয়।

এদিকে, এ ঘটনায় গৃহবধু খাদিজা খাতুনের ভাই আব্দুল জলিল তিনজনের নাম উল্লেখ করে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।

এ ঘটনায় কলারোয়া থানার আফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুনীর উল গিয়াস বলেন, এখনো মামলা রেকর্ড হয়নি। ঘটনাটি আমরা অনুসন্ধান করছি। পরবর্তীতে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।