দাদন ব্যবসায়ীর ঋণের চাপে বৃদ্ধের আত্মহত্যা

জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে দাদন ব্যবসায়ীদের ঋণের টাকার চাপে বৃদ্ধ আবুল হোসেন নামে এক বৃদ্ধ গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

স্বজন ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার দুপুরে আক্কেলপুর পৌর এলাকার গুড়কী গ্রামের মৃত সোলাইমান আলীর ছেলে আবুল হোসেন (৬৫) কে বাড়িতে রেখে পরিবারে অন্যরা বিভিন্ন কাজে বাড়ির বাইরে যান। এ সুযোগে ওই বৃদ্ধ বাড়ির প্রধান গেট ভিতর থেকে বন্ধ করে শয়ন ঘরের বারান্দার তীরের সাথে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন।

স্ত্রী মমতাজ কাজ সেরে বাড়িতে প্রবেশের জন্য স্বামী আবুল হোসেনকে ডাকাডাকি করেন। কিন্তু কোন সাড়া না পেয়ে প্রতিবেশিদের সহায়তায় প্রাচীর টপকে বাড়িতে প্রবেশ করে দেখতে পান আবুল হোসেনের ঝুলন্ত দেহ। তাকে জীবিত মনে করে ঝুলন্ত অবস্থা থেকে নামিয়ে দেখেন তিনি মৃত্যুবরণ করেছেন।

স্ত্রী মমতাজ বলেন, বৃদ্ধ আবুল হোসেন (৬৫) পৌর সদরের পুরাতন বাজার এলাকার প্রয়ত হীরালাল আগরওয়ালার ছেলে বিশ্বনাথ আগরওয়ালা ও বিহারপুর গ্রামের প্রয়াত শঙ্কর মহুরারের ছেলে টগর নামের দু’ দাদন ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ৩ লক্ষাধিক টাকা প্রতি মাসে শত করা ১০ টাকা প্রদানের চুক্তিতে দাদন গ্রহন করেন। সময় মতো পরিশোধ করতে না পারায় তারা নানা ভাবে ভয়ভীতি প্রদর্শন করতে থাকে।

এক পর্র্যায়ে দাদন ব্যবসায়ীদের হুমকির চাপে আত্মহত্যা পথ বেছে নিতে বাধ্য হয়েছেন আবুল হোসেন।

এ রির্পোট লিখার আগ পর্যন্ত থানা কোন অভিযোগ দাখিল না হলেও অভিযোগ লেখার প্রস্তুতি চলছে।

আক্কেলপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কিরণ কুমার রায় বলেন, এ পর্যন্ত কোন অভিযোগ হাতে পাইনি। অভিযোগ পাইলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

মওদুদ আহম্মেদ/আক্কেলপুর