কওমী মাদ্রাসার লগো ও পরীক্ষার্থীরা। ছবি : সংগৃহীত

সরকারি স্বীকৃতিপ্রাপ্ত কওমি মাদ্রাসার দাওরায়ে হাদিসের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক সংস্থা আল হাইয়াতুল উলইয়া লিল জামিয়াতিল কওমিয়া বাংলাদেশের অধীনে চলমান দাওরায়ে হাদিসের পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে।

১২ এপ্রিল শনিবার সকাল ৭টায় রাজধানীর মতিঝিলে আল হাইয়াতুল উলইয়া লিল জামিয়াতিল কওমিয়া বাংলাদেশের কার্যালয়ে জরুরি বৈঠকে বসে নেতৃবৃন্দ এ সিদ্ধান্ত নেন।

বৈঠকে দাওরায়ে হাদিসের প্রশ্নপত্র ফাঁস বিষয়ে জরুরি আলোচনা হয় এবং বৈঠকের শুরুতেই নেতৃবৃন্দ পেছনের সব পরীক্ষা বাতিল এবং সামনের সব পরীক্ষা স্থগিতের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। পরীক্ষার নতুন তারিখ নির্ধারণ, প্রশ্নফাঁসরোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা ইত্যাদি বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে বৈঠক চলছে। শিগগিরই দ্রুত তারিখ ঘোষণা করা হবে।

বৈঠকে হাইয়াতুল উলইয়ার অধিভুক্ত ৬ বোর্ডের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত রয়েছেন।

উল্লেখ্য, কওমি মাদরাসার দাওরায়ে হাদিসের পরীক্ষা ৮ এপ্রিল শুরু হয়েছে। পরীক্ষা শেষ হওয়ার কথা ছিল ১৮ এপ্রিল।

আল হাইয়াতুল উলইয়া লিল জামিয়াতিল কওমিয়া বাংলাদেশের অধীনে এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ৬টি শিক্ষাবোর্ডের অধীনে মোট ২৬ হাজার ৭২১ জন শিক্ষার্থী এ বছর পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছেন।

হাইয়াতুল উলইয়ার অধীনে ৬টি শিক্ষা বোর্ড হলো- বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশ, বেফাকুল মাদারিসিল কওমিয়া গওহরডাঙ্গা বাংলাদেশ, আঞ্জুমানে ইত্তেহাদুল মাদারিস বাংলাদেশ, আজাদ দ্বীনি এদারায়ে তালিম বাংলাদেশ, তানজিমুল মাদারিসিদ দ্বীনিয়া বাংলাদেশ এবং জাতীয় দ্বীনি মাদরাসা শিক্ষাবোর্ড।