পর দখলদারদের হাত থেকে ফুলবাড়ী সরকারী কলেজের জমি উদ্ধার

দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে সরকারী কলেজের জায়গা অবৈধভাবে দখল করে রাখা স্থানীয় কিছু দখলদারদের হাত থেকে দীর্ঘদিন পর উদ্ধার করেছে সরকারী কলেজ কর্তৃপক্ষ।

দীর্ঘদিন ধরে সরকারী কলেজ ও ছোট যমুনা ব্রীজ সংলগ্ন উত্তর পার্শ্বে গড়ে উঠা অবৈধ স্থাপনায় নিয়মিত মাদক ব্যবসা ও জুয়ার আসর বসার অভিযোগ থাকলেও এসব ভূমি দস্যুদের হাত থেকে জমি উদ্ধার করতে নানা পদক্ষেপ নিয়েও পেরে উঠেনি সরকারী কলেজ কর্তৃপক্ষ।

তবে চলমান সড়ক সম্প্রসারণ কার্যক্রমে গত ২০ জানুয়ারী দিনাজপুর সড়ক ও জনপথ বিভাগ কর্তৃক উচ্ছেদ অভিযানে সড়ক সংলগ্ন অবৈধ স্থাপনায় ভেঙ্গে দেয়া হয়।

একইসাথে সড়ক সংলগ্ন কলেজের সীমানার অভ্যন্তরে অবৈধ স্থাপনাও সরিয়ে দেয়া হয়। এরপর কলেজ কতৃপক্ষ সেখানে সীমানা য়

তুলতে গেলে দখলদারেরা দখল ছাড়তে না চাইলে এবং বাঁধা সৃষ্টি করলে, এসময় কলেজের শিক্ষার্থীরা প্রতিবাদ করলে, দখলদারেরা শিক্ষার্থীদের অকথ্যভাষায় গালিগালাজ করে।

এর প্রতিবাদে সরকারী কলেজের ছাত্ররা গত মঙ্গলবার বিকেলে, ঢাকা-দিনাজপুর মহাসড়কের উপর বসে আধাঘন্টা সড়ক অবরোধ করে রাখে।

পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ভারপ্রাপ্ত কানিজ আফরোজ ঘটনাস্থলে এসে ফুলবাড়ী থানার অফিসার্স ইনচার্জ ফররুল ইসলামসহ পুলিশ ও র‌্যাব সদস্যদের সহযোগিতায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।

এতে দখলদাররা পিছু হঠতে বাধ্য হয়। ফলে এলাকাবাসী ও কলেজ কতৃপক্ষের দীর্ঘদিনের প্রত্যাশার প্রতিফলন ঘটে । সেইসাথে মাদক মুক্ত নিরাপদ শিক্ষাঙ্গন প্রতিষ্ঠায় সরকারের এই পদক্ষেপকে স্বাগত জানায় এলাকাবাসী ।

সরকারী কলেজের ছাত্রনেতা রাসেল ও নাসিমসহ একাধিক ছাত্র-ছাত্রীরা জানায়, এটা ফুলবাড়ী সরকারী কলেজ তথা ফুলবাড়ীর সাধারণ জনগণের জন্য আনন্দের সংবাদ।

এবিষয়ে সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ নজমুল হক জানান, এই সম্পত্তি আমার নিজের নয়। এটি ফুলবাড়ী সরকারী কলেজের সম্পত্তি। সর্বপরি সরকারের সম্পত্তি,দীর্ঘদিন পর এই সম্পত্তি কলেজের দখলে নিতে পেরে কলেজের সকল শিক্ষার্থী, শিক্ষকসহ ফুলবাড়ীবাসী আনন্দিত।

-মেহেদী হাসান উজ্জল