মাহমুদ উল্লাহ্‌
বিজনেস করেসপন্ডেন্ট

আফরান নিশো ও ভক্ত। ছবি: সংগৃহীত

মো: তুহিন, টাঙ্গাইলের কাগমারির একটি কলেজের এইচএসসি প্রথম বর্ষের ছাত্র। সম্প্রতি তিনি ঢাকায় এসে তার প্রিয় অভিনেতা আফরান নিশোকে নিয়ে তার তৈরি একটি পোস্টার দেয়ালে লাগাচ্ছিলেন। উত্তরা ১০/১১ নম্বর সেক্টরের দিকে। এমন সময় এক বয়স্ক লোক এসে তাকে চড় থাপ্পড় মারলে তিনি তখনই ঢাকা ত্যাগ করে টাঙ্গাইল চলে যান।

তার সেই পোস্টারটি ছিলো অভিনেতা আফরান নিশোকে উদ্দেশ্য করে লেখা। তার স্বপ্ন ছিলো তিনি ঢাকায় এসে আফরান নিশোর সঙ্গে দেখা করবেন। কিন্তু চড় খেয়েই সেই স্বপ্ন তার ভাঙ্গে। এখন আবার ভাবছেন আসছে কোরবানীর ঈদের পর তিনি আবার আফরান নিশোর সঙ্গে দেখা করার চেষ্টা করবেন।

আজকের পত্রিকার সঙ্গে কথা হলে তুহিন বলেন, আফরান নিশো ভাইয়ের আমি একজন ভক্ত। গত ডিসেম্বরে যখন আমি পোস্টার বানাই তখনই পোস্টারটি ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে যায়। গত মাসে জুন মাসের শেষের দিকে আমি ঢাকা আসি, উত্তরা শুটিং হাউজগুলোর আশেপাশে রাতে পোস্টার লাগানোর সময় এক মুরুব্বি এসে আমাকে চড় থাপ্পড় দেয়। মনের কষ্টে আমি আবার টাঙ্গাইল চলে আসি। আফরান নিশো ভাইকে আমি অনেক ভালোবাসি। তার সঙ্গ আমি দেখা করতে চাই। সেই সব শুটং হাইজগুলো থেকে আমাকে ফোন দেয়া হয়েছিলো। তাদেরকে ঈদের পর আমি আবার তাদেরকে অনুরোধ করবো যেনো আফরান ভাইয়ের সঙ্গে তারা আমাকে দেখা করিয়ে দেয়। এখন হয়তো তারা ঈদের শুটিং নিয়ে এখন ব্যস্ত সময় পার করছে।

উল্লেখ্য, তিন ভাইয়ের মধ্যে তুহিন বড়। বাবা থাকেন দুবাই। তিনি মাঝে মাঝে গল্প লিখেন। ভবিষ্যতে তুহিন লেখক হওয়ার স্বপ্ন দেখে।

নিচে সেই পোস্টারের লেখাগুলো দেয়া হলো:

দাদা আমি বলছি

দাদা আমি তুহিন বলছি, প্রথমত আমি আপনার একজন ভক্ত, দ্বিতীয়ত, আমার কাছে একটা বাস্তবতা আছে, যে বাস্তবতা টা আপনাকে ছাড়া অসহায়, বাস্তবতার নাম বিরহের কান্না। আম টাঙ্গাইল জেলার দেলদুয়ার থানাধীন নাটিয়াপাড়াতে আমার বসবাস।

আপনার দেখা পাবার জন্য ঢাকায় এসে খুব কষ্টে আছি, এই অচেনা শহরে ঠিকঠাক মতো খাওয়া দাওয়া হচ্ছে না। আমি মনে মনে ভেবে রেখেছি, যে পর্যন্ত আপনার দেখা না পারো, ততদিন অবদি অচেনা এই শহরেই থেকে যাবো।

আমি যে দাদা আপনার একজন ভক্ত, জানেন দাদা আমি আপনার স্টাইলে চুল রাখি, আয়নার সামনে দাড়িয়ে নিজের মধ্যে আপনাকে আঁকার চেষ্টা করি, বাড়ি থেকে বের যিখন হয়েছি আপনাকে ছুয়ে দেখতেই হবে।

এই অচেনা ঢাকায় আমি অনেক কষ্টে আছি দাদা, আমি রাস্তায় রাস্তায় থাকি, এখঅ েন আমার কেউ নেই। নিজেকে দেখতে হয় নিজেকেই।

আপনাকে চাই দাদা, আপনাকে চাই চাই, আপনাকে ছাড়া আমার আমার বিরহের কান্না একদম অসহায়।

কেউ যদি আফরান নিশো দাদার সঠিক ছিকানা জানেন, তাহলে দয়া করে নিম্ন মোবাইল না্বোরে জানাবেন।

তুহিন

মোবাই: …., …..।

আজকের পত্রিকা/এমইউ