মাহমুদ উল্লাহ্‌
বিজনেস করেসপন্ডেন্ট

দুটি মেয়ে রয়েছে। স্ত্রী আরও একটি সন্তান চেয়েছিল কিন্তু দিতে অস্বীকৃতি জানায় স্বামী। তাই স্বামীকে কু’পিয়ে হ’ত্যা করেছে স্ত্রী।

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের মুম্বাই শহরতলি নালাসোপারা এলাকায়। এ ঘটনায় ওই গৃহবধূকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ভারতীয় বেশ কিছু গণমাধ্যম এই সংবাদ প্রকাশ করেছে।

পুলিশ জানিয়েছে, ৩৩ বছরের প্রণালী কদম ও তার স্বামীর সংসারে দুটি মেয়ে রয়েছে।

প্রণালীর দাবি, তিনি ছেলে চাইলেও তার স্বামী তৃতীয় সন্তানের জন্ম দিতে চাননি। স্বামীর এই সিদ্ধান্তে প্রচণ্ড রেগে গিয়ে তাকে খু’ন করেন প্রণালী।

জেরার মুখে গোয়েন্দাদের বিভ্রান্ত করার জন্য প্রথমে তিনি বলেন, আত্মহ’ত্যা করতে নিজের শরীরে ছুরির কো’প বসিয়েছিলেন তার স্বামী। এরপর জবানবন্দি পাল্টে তিনি বলেন, বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক গড়েছিলেন স্বামী, সেই রাগেই তার দেহে ছুরির কোপ বসিয়েছিলেন। বয়ানে অসঙ্গতি নজর করে তাকে আরও খুঁটিয়ে জেরা করা হয়। ক্রমে ফাঁস হয় আসল তথ্য।

জানা যায়, তৃতীয় সন্তান ছেলেই হবে বলে বিশ্বাস ছিল প্রণালীর। কিন্তু আর্থিক সঙ্গতির কথা তুলে তাতে রাজি হননি তার স্বামী সুনীল (৩৬)। বুধবার (২১ আগস্ট) ভোর সাড়ে পাঁচটা নাগাদ ক্ষিপ্ত ও হতাশ প্রণালী রান্নাঘর থেকে ছু’রি এনে তাকে মোট ১১ বার আঘাত করেন। এতে সুনীলের মৃ’ত্যু হয়।

আজকের পত্রিকা/আরকে