গত ২৯ এবং ৩০ মার্চ ‘সেন্টার ফর জেনোসাইড স্টাডিজ’ এবং Friedrich-Ebert-Stiftung কর্তৃক আয়োজিত উচ্চতর শিক্ষার ভবিষ্যত বিষয়ক দ্বিতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এই অনুষ্ঠানে অন্যতম বক্তা হিসেবে বক্তব্য দিয়েছেন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন বাংলাদেশী ফ্যাশন মডেল এবং নকশাকার বিবি রাসেল।

উচ্চ শিক্ষার ভবিষ্যত কোনদিকে আগাচ্ছে এ বিষয়ে আলোচনার জন্যই দু’দিনের ওই সম্মেলনে আয়োজন করা হয়। দেশ-বিদেশের শিক্ষাবিদ, বিশেষজ্ঞ, গবেষক, সাংবাদিকসহ ৫ শতাধিক অংশগ্রহণকারী এই অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছিলেন। শিক্ষার্থীরা  বাংলাদেশে উচ্চতর শিক্ষার ব্যাপারে আরও উদ্যোগী হবে, এমন আশা নিয়ে দু’ দিনের সম্মেলন শেষ হয়।

ইউনেস্কোর শান্তি ও শিল্পের দূত হিসেবে পরিচিত বিবি রাসেল এ সম্মেলনে শিক্ষার্থী এবং গবেষকদের উদ্দেশ্যে নিজেদের মৌলিক শিক্ষাকে সমৃদ্ধ করার মাধ্যমে তাদের সৃজনশীলতা সর্বাধিক করে তোলার আহ্বান জানান।

এর কিছু দিন আগে, মার্চের শুরুতে বিবি রাসেল স্পেনে গিয়েছিলেন, যেখানে তাকে আইএসইএম ফ্যাশন বিজনেস স্কুল আমন্ত্রণ জানিয়ে পাম্পলোনার নাভারা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্কুল অব আর্কিটেকচারের শিক্ষার্থীদের নিয়ে একটি সম্মেলন করেছিলেন। সেখানে তিনি মডেল ও ফ্যাশন ডিজাইনার হিসাবে তার ক্যারিয়ার এবং বিশ্বব্যাপি ফ্যাশন বিকাশে কী কী ভূমিকা রাখা যেতে পারে, সে সম্পর্কে কথা বলেছেন। তিনি সেখানে বলেন, ‘আমার সৃষ্টির মাধ্যমে আমি আমার দেশের ঐতিহ্যকে রক্ষা করতে, সৃজনশীলতাকে উন্নীত করতে, কর্মসংস্থান সৃষ্টি করতে, নারীদের ক্ষমতায়ন এবং দারিদ্র্য দূর করতে অবদান রাখতে চাই। এটাই আমার প্রতিশ্রুতিবদ্ধতা।’

আজকের পত্রিকা/সিফাত