ডোমার কলেজ শিক্ষককে মারধরকারী বখাটে শান্ত গ্রেফতার

অবশেষে পুলিশের হাতে আটক হলো নীলফামারীর ডোমার সরকারী কলেজের প্রভাষক সোলায়মান আলীকে মারধরকারী বখাটে ছাত্র শান্ত (১৭)।

গোপন সংবাদে অভিযান চালিয়ে বৃহস্পতিবার ভোরে ঠাকুরগাঁও জেলা সদরের জগন্নাথপুর ইউনিয়নের কসাই পাড়া গ্রামে তার ফুফা আজাহারুল ইসলামের বাড়ী হতে তাকে গ্রেফতার করা হয়। শান্ত ডোমার কলেজপাড়া এলাকার মাছ বিক্রেতা লিটন মিয়ার ছেলে।

এ দিন বিকালে আদালতের মাধ্যমে নীলফামারী জেলা কারাগারে তাকে প্রেরন করা হয়েছে বলে জানান ডোমার থানার ওসি মোস্তাফিজার রহমান ।

জানা যায়, গত ৭ সেপ্টেম্বর দুপুরে ডোমার সরকারী কলেজের এক প্রথম বর্ষের ছাত্রকে কলেজ চত্বরে মারপিট করছিল শান্ত সহ কয়েক বখাটে। যা দেখতে পেয়ে ওই কলেজের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের প্রভাষক সোলায়মান আলী বাধা দিতে গেলে তাকেও বেধরক মারধর ও লাঞ্চিত করা হয়। ওই প্রভাষককে ভর্তি করা হয় উপজেলা হাসপাতালে।

ওই ঘটনায় ডোমার ও নীলফামারীতে কলেজ শিক্ষকরা মানববন্ধন ও সমাবেশের মাধ্যমে হামলাকারীদের গ্রেফতার ও বিচার দাবি করে আসছিল।

এ ঘটনায় প্রভাষক সোলায়মান আলী নিজে বাদী হয়ে শান্ত ও ছোট রাউতা সাহাপাড়া এলাকার আনজারুল চৌধুরীর ছেলে সৈকদ চৌধুরী সহ আরো অজ্ঞাতনামা ১৬/১৭ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে ৪ জনকে আটক করলেও শান্ত ছিল পলাতক। অবশেষে শান্তকে পুলিশ গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।

ইয়াছিন মোহাম্মদ সিথুন/নীলফামারী