বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের উপ-মন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেন, বর্তমানে ডেঙ্গু একটি নাগরিক সমস্যা । এই সমস্যা দুর করার জন্য আমাদের বিশেষজ্ঞ কৃষিবিদ, কীটতত্ববিদ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের কীটতত্ব¡ বিভাগের অধ্যাপকগণ আছেন। তাদের সাহায্য ও সহযোগিতা ছাড়া এ সমস্যা সমাধান করা যাবে না। দেশে যে কীটপতঙ্গ রয়েছে এদের মধ্যে উপকারী কীটদের সংরক্ষন এবং অপকারী কীটপতঙ্গ নিরোধ করতে হবে ।

মঙ্গলবার (৬আগষ্ট) বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাষা শহীদ রফিক ভবন ডেঙ্গু বিষয়ক সচেতনতা সৃষ্টি ও মশক নিধন কর্মসূচির অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথীর বক্তব্যে তিনি একথা বলেন । এসময় তিনি আরো বলেন, আমরা শুধু আলোচনা ও আনুষ্ঠানিকতার মধ্যে না থেকে এই সংকট নিরসনে আমাদের নিজ পরিসর থেকে যদি আমরা ব্যবস্থা গ্রহন করি তাহলে আমাদের চারপাশ এডিস মশামুক্ত হবে । এই জন্য প্রতিদিন হলেও আমরা একটি করে কাজ করবো ।

এসময় শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, কৃষি গবেষনায় আমরা অনেকদুর এগিয়েছি । পতঙ্গ নিয়ন্ত্রণ বিষেয়ে যে গবেষনা আমরা সেই গবেষণার সহযোগিতা নিতে চাই । দীর্ঘমেয়াদী এ সমস্যা সমাধান ও বিস্তার আটকানোর জন্য একটা ক্যামিকেল সমাধান দরকার । এই সমস্যা সমাধানের জন্য আমরা শিক্ষামন্ত্রনালয় থেকে কীটতত্ত্ববিদ ও বিশেষজ্ঞদের একত্রিত করে স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয়ের সমন্বয়ে এডিস মশা প্রতিরোধের উদ্যোগ গ্রহন করবো।

এসময় সভাপতির বক্তব্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচাযর্ অধ্যাপক ড, মীজানুর রহমান বলেন, কীটতত্ত্ববিদদের সহযোগিতা ছাড়া এ সমস্যা সমাধান হবে না । আমরা দেশের বাইরে থেকে ঔষধ নিয়ে আসলেও রক্ষা পাবো না । আমাদের পরিপার্শ্বিক জায়গাগুলো পরিস্কার-পরিছন্ন রাখলে আমরা এই সমস্যা থেকে রক্ষা পাবো ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিষ্টার প্রকৌশলি ওহিদুজ্জামানের সঞ্চালনায় এ সময় উপস্থিত ছিলেন ।বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার অধ্যাপক ড. সেলিম ভূঁইয়া, শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ড. নূর মোহাম্মদ, প্রক্টর মোস্তফা কামাল, নাইফ এন্ড আর্থ অনুষদের ডিন কাজী সাইফুদ্দীন সহ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদের ডিন, শিক্ষক , কর্মমর্তা কর্মচারী এবং সাধারণ শিক্ষার্থীবৃন্দ ।

মিজানুর রহমান/জবি