আদালত। প্রতীকী ছবি

পিরোজপুর জেলার ডুমুরিয়া উপজেলার মালতিয়া গ্রামের আসমা বেগমকে (২৬) গলাকেটে হত্যার দায়ে তার স্বামী রেজাউল মোড়ল (৪০) নামের এক ব্যক্তিকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

(০৬ নভেম্বর) বুধবার দুপুরে জেলা ও দায়রা জজ আব্দুল মান্নান আসামির উপস্থিতিতে এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত রেজাউল মোড়ল খুলনা জেলার ডুমুরিয়া উপজেলার মালতিয়া গ্রামের আবুল কাশেমের ছেলে। তার স্ত্রী মৃত আসমা বেগম সাতক্ষীরা জেলার তালা উপজেলার শোভাশেনী গ্রামের শাহজাহান মোড়লের মেয়ে।

জানা যায়, ২০১৬ সালের ২২ ডিসেম্বর রাত ১১টার দিকে আসামি রেজাউল খাবার খেয়ে স্ত্রীকে নিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন। পরদিন সকালে তাদের ঘরে খাবার খেতে আসা শ্রমিক আলমগীর ডাক দিলে কোনো সাড়া না পেয়ে তিনি ঘরের দরজা দিয়ে দেখেন ঘরের মেঝেতে রক্তাক্ত অবস্থায় ওই গৃহবধূর মরদেহ পড়ে রয়েছে।

পরে স্থানীয় লোকজন পুলিশে খবর দিলে মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। এ ঘটনায় ওই গৃহবধূর বাবা শাহজাহান মোড়ল বাদী হয়ে পিরোজপুর সদর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার দীর্ঘ শুনানি শেষে আসামির উপস্থিতিতে বিচারক এ রায় দেন।